।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

ইরানের নৈতিকতাবিষয়ক পুলিশের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। ইরানি নারীদের ওপর নির্যাতন ও দমন-পীড়নের অভিযোগে স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) এই নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে বাইডেন প্রশাসন।

কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়, হিজাব আইন লঙ্ঘনের অপরাধে পুলিশের হাতে আটক ২২ বছর বয়সী তরুণী মাহসা আমিনির মৃত্যুর প্রতিবাদে বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়েছে ইরানে। প্রতিবাদ-বিক্ষোভের বড় অংশজুড়ে রয়েছেন নারীরাই। আর এই বিক্ষোভের মধ্যেই ইরানের নৈতিকতা পুলিশের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করল ওয়াশিংটন।

মার্কিন ট্রেজারি বিভাগ এক বিবৃতিতে বলেছে, এই কর্মকর্তারা এমন সব সংগঠনের তদরকি করে যারা শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদকারীদের এবং ইরানের সুশীল সমাজের সদস্যদের, রাজনৈতিক ভিন্ন মতাবলম্বীদের এবংবাহা’ই সম্প্রদায়ের লোকজনকে দমন করতে নিয়মিত সহিংসতা চালিয়ে থাকে।

ওই বিবৃতিতে আরও বলা হয়, এই নিষেধাজ্ঞার চূড়ান্ত লক্ষ্য শাস্তি দেওয়া নয়, বরং তাদের আচরণে ইতিবাচক পরিবর্তন নিয়ে আসা।

তবে ইরানের নৈতিকতাবিষয়ক পুলিশ তাদের নির্যাতনে মাহসা আমিনির মৃত্যুর কথা অস্বীকার করেছে। 

তেহরান পুলিশের প্রধান জেনারেল হোসেন রহিমি বলেন, ওই তরুণী পোশাকের আইন লঙ্ঘন করেছিলেন।  তার সহকর্মী ও আত্মীয়রা তাকে শালীন পোশাক আনতে বলেছিল।

Comments are closed, but trackbacks and pingbacks are open.