।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

কুষ্টিয়ার দৌলতপুর থানার একটি মাদক মামলায় ছয় আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এছাড়া তাদের এক লাখ টাকা করে জরিমানা, অনাদায়ে আরও এক বছর করে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

রোববার (১৮ সেপ্টেম্বর) দুপুরে কুষ্টিয়া অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালত-১ এর বিচারক মো. তাজুল ইসলাম তিন আসামির উপস্থিতিতে এ রায় দেন। 

সাজাপ্রাপ্তরা হলেন-দৌলতপুর উপজেলার ধর্মদহ গ্রামের বাসিন্দা দবির কসাইয়ের ছেলে বাবু (৪৩), রমজার আলীর ছেলে মুসলাম (৪০), সিরাজের ছেলে বকুল (৩৮), ধর্মদাহ গ্রামের লিয়াকতের ছেলে জাহাঙ্গীর (৪০), মোমিনের ছেলে জায়েদুল (৩৩) এবং পাকুরিয়া ভাঙ্গাপাড়ার মৃত লিয়াকতের ছেলে হাবু (৩৮)। রায়ের সময় তাদের মধ্যে বাবু, মুসলাম ও বকুল আদালতে উপস্থিত ছিলেন। বাকিরা পলাতক।

আদালতের মামলা সূত্রে জানা যায়, ২০১৪ সালের ২৪ মে দুপুরে কুষ্টিয়া দৌলতপুর উপজেলার সীমান্তবর্তী বেলতলা মাঠে পুলিশের গোয়েন্দা শাখার একটি দলের মাদক বিরোধী অভিযানে গমের খড় দিয়ে ঢেকে রাখা ৬৭১ বোতল ফেনসিডিল ও ৪৬ কেজি গাঁজা জব্দ করা হয়। এতে জড়িত সন্দেহে একটি মামলা করা হয়। মামলায় নয়জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিদের আসামি করা হয়। মামলাটি করেছিলেন দৌলতপুর থানার সেই সময়ের উপপরিদর্শক (এসআই) খাদেমুল ইসলাম।

মামলাটির তদন্ত শেষে ২০১৪ সালের ২৩ জুন আসামিদের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন দাখিল করেন কুষ্টিয়া গোয়েন্দা পুলিশের সেই সময়ের এসআই এসএম জাহিদ বিন আলম।

কুষ্টিয়া জেলা ও দায়রা জজ আদালতের আইনজীবী অ্যাডভোকেট অনুপ কুমার নন্দী জানান, মামলার শুনানি শেষে অভিযোগ প্রমাণ হওয়ায় ছয় আসামিকে এ সাজা দিয়েছেন আদালত। অপরাধ প্রমাণ না হওয়ায় বাকি তিন আসামিকে খালাস দেওয়া হয়েছে। 

Comments are closed, but trackbacks and pingbacks are open.