।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

রংপুরের তারাগঞ্জ উপজেলায় যাত্রীবাহী বাসের সঙ্গে অ্যাম্বুলেন্সের মুখোমুখি সংঘর্ষে নবজাতসহ তিনজন নিহত হয়েছেন। এতে আহত হয়েছেন দুইজন।

রোববার (১১ সেপ্টেম্বর) সকালে রংপুর-দিনাজপুর সড়কের খারুভাজ সেতু সংলগ্ন এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন—অ্যাম্বুলেন্সের চালক আল-আমিন ও নীলফামারীর রশিদুলের তিন দিনের সন্তান। নিহত একজন ও আহত দুইজনের পরিচয় জানা যায়নি। আহতদের রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, তিন দিন আগে জন্ম নেওয়া শিশু গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়ায় নীলফামারী থেকে চিকিৎসার জন্য অ্যাম্বুলেন্সে রংপুর মেডিক্যালে আনা হচ্ছিল। সকাল ৯টার দিকে তারাগঞ্জ উপজেলার খারুভাজ সেতুর কাছে পৌঁছালে রংপুর থেকে পঞ্চগড়গামী বাসের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে অ্যাম্বুলেন্সের ৫ যাত্রী আহত হন। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ আহতদের উদ্ধার করে রংপুর মেডিক্যালে নিয়ে যান। সেখানে তিন দিনের শিশু ও অ্যাম্বুলেন্সচালকসহ তিনজনকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক।

হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক সাফিউল জানান, হাসপাতালে আনার পথেই তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। দুইজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের অবস্থাও আশঙ্কাজনক।

তারাগঞ্জ হাইওয়ে পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহবুব মোর্শেদ জানান, লাশ হাসপাতালের মর্গে রাখা আছে। দুর্ঘটনাকবলিত দুটি গাড়ি থানায় নেওয়া হয়েছে।