।। বার্াকক্ষ প্রতিবেদন ।।

বঙ্গোপসাগরে মাছ ধরতে গিয়ে দুর্যোগের কবলে পড়ে নিখোঁজ হওয়া ৬৫ জেলেকে উদ্ধার করে সাতক্ষীরায় আনা হয়েছে।

উদ্ধার হওয়া এসব জেলে বরগুনা ও পিরোজপুরসহ বিভিন্ন উপকূলীয় জেলার বাসিন্দা।

শনিবার সকালে বন বিভাগের সাতক্ষীরা রেঞ্জের বনকর্মীরা উদ্ধার করেছেন ৪১ জনকে বলে জানিয়েছেন ওই রেঞ্জের বুড়ি গোয়ালিনীর স্টেশন অফিসার (এসও) নুরুল আলম।

আর ঝড়ের মধ্যে ভারতের জলসীমায় হারিয়ে যাওয়া ২৪ জেলেকে উদ্ধার করে বন বিভাগের কাছে বুঝিয়ে দিয়েছেন দেশটির জেলেরা বলে জানান তিনি।

এদিকে বৈরী আবহাওয়ায় পটুয়াখালী ও পিরোজপুরের ‘ডজনখানেক ট্রলার বঙ্গোপসাগরের বিভিন্ন পয়েন্টে ডুবে গেছে’; যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে আরও ‘কয়েক ডজনের’ বলে তাদের স্বজন ও সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।

এসব মাছ ধরা নৌযানে প্রায় পাঁচশত জেলে রয়েছেন। তাদের মধ্যে অনেকে ফিরে আসলেও বেশির ভাগেরই খবর পাওয়া যাচ্ছে না।

সাতক্ষীরা বন বিভাগের বুড়ি গোয়ালিনীর এসও নুরুল জানান, বঙ্গোপসাগরে মাছ ধরতে যেয়ে বৃহস্পতিবার থেকে দুর্যোগের কবলে পড়ে নিখোঁজ হয়ে যান ৪১ জেলে। তাদের শনিবার সকালে সুন্দরবনের সাতক্ষীরা রেঞ্জের প্রবেশ নিষিদ্ধ অভায়রণ্যে ভাসতে দেখে উদ্ধার করা হয়।

পরে তাদের তিনটি ট্রলারও খুঁজে বের করে উদ্ধার করা হয়।

শনিবার সন্ধ্যায় এসব জেলেদের সাতক্ষীরা রেঞ্জ সংলগ্ন এলাকায় আনা হয়।

এসও নুরুল জানান, একইভাবে নিখোঁজ হওয়া ২৪ জেলে নৌকা হারিয়ে ভাসতে ভাসতে ভারতীয় সীমায় ঢুকে পড়ে। পরে তাদের ভারতীয় জেলেরা উদ্ধার করে বন বিভাগের হলদেবুনিয়া অফিসে হস্তান্তর করে।

তাদেরকে আনতে রোববার বুড়িগোয়ালিনী স্টেশনের একটি নৌযান রওয়ানা দেবে বলে তিনি জানান।