।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

ব্যাংক ও খোলা বাজারে দরের ঊর্ধ্বগতি ও সরবরাহ সঙ্কটের এই সময়ে বিদেশ ভ্রমণে কার্ডের মাধ্যমে ডলার নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র ও নির্বাহী পরিচালক মো. সিরাজুল ইসলাম সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার সময় এই পরামর্শ দেন।

বৃহস্পতিবার ব্যাংকের চেয়ে খোলাবাজারে নগদ অর্থে ডলারের দরের পার্থক্য ১০ টাকা পর্যন্ত উঠেছিল। ফলে কিনে ডলার নেওয়ার চেয়ে কার্ডে নেওয়াই সাশ্রয়ী।

গ্রাহকদের কাছে নগদ অর্থে কাগুজে ও কার্ডে দুই ভাবেই ডলার বিক্রি করে ব্যাংক। কাগুজে ডলার কিনতে যেখানে খরচ হয়েছে ১০৯.৫০ টাকা পর্যন্ত, সেখানে ব্যাংক কিংবা কার্ডের মাধ্যমে ডলার কেনায় ৯৮ টাকা পর্যন্ত দর উঠেছিল।

বৃহস্পতিবার বেসরকারি দ্য সিটি ব্যাংক কার্ডের মাধ্যমে ডলার বিক্রি করেছে ৯৫ টাকায়, সেখানে কাগুজে ডলার বিক্রি করেছে ১০৯.৫০ টাকা দরে। কার্ডের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সেবার মূল্য এই দরে পরিশোধ করা যাচ্ছে।

বুধবার খোলা বাজারে ডলারের দর উঠেছিল ১১৯ টাকা পর্যন্ত, এর একদিন পরেই বৃহস্পতিবার ৬ টাকা কমে দর নেমেছে ১১৩ টাকায়।

অন্যদিকে ব্যাংকগুলোতে নগদ অর্থে ডলার কিনতে খরচ হচ্ছে ১০৭ থেকে ১০৯.৫০ টাকা পর্যন্ত।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ওয়েবসাইটে দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, নগদ অর্থে ব্যাংকগুলোতে কাগুজে ডলার কিনতে গ্রাহককে ১০৯.৫০ টাকা পর্যন্ত খরচ করতে হচ্ছে গ্রাহককে।

কিন্তু কার্ডে নিলে তাতে বর্তমানে খরচ পড়ছে ৯৫ টাকার মতো। কয়েকদিন পূর্বেও যেখানে ৯৭-৯৮ টাকায় উঠেছিল, তখন খোলাবাজারেও কাগুজে ডলারের দর ছিল ১০৮ টাকার উপরে। আর ব্যাংকে ছিল ১০৪ টাকা থেকে ১০৫ টাকার মতো।

ডলারের বাজারে ভারসাম্য রাখতে বৃহস্পতিবারও ১২ কোটি ২০ লাখ ডলার বিক্রি করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক, বিভিন্ন ব্যাংককে তা দেওয়া হয়েছে ৯৫ টাকা দরে।