।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

মাংকিপক্সের প্রাদুর্ভাবে সান ফ্রান্সিসকোর পর এবার যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক সিটিতে জরুরি স্বাস্থ্য অবস্থা ঘোষণা করেছে স্থানীয় প্রশাসন। শহরটিতে শনাক্তের হার মোকাবিলায় সতর্ক অবস্থানে রয়েছে কর্তৃপক্ষ।

শনিবার মেয়র ইরিক অ্যাডামস এবং নিউইয়র্ক সিটির মানসিক স্বাস্থ্যবিধি বিভাগের চিকিৎসক অশ্বিন ভাসান এক যৌথ বিবৃতি জানিয়েছেন, আমরা অনুমান করছি, নিউইয়র্কে দেড় লাখ মানুষ মাংকিপক্সর ঝুঁকিতে থাকতে পারেন। বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, জরুরি স্বাস্থ্য অবস্থা অবিলম্বে কার্যকর হবে।

নিউ ইয়র্কের গভর্নর ক্যাথি হচুল একটি নির্বাহী আদেশ জারি করার ঠিক একদিন পরই জরুরি অবস্থার ঘোষণা এসেছে। মাংকিপক্সের আক্রান্তের লাগাম টানতে ভ্যাকসিনের সংকট দেখা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। মার্কিন সংক্রমণ রোগ বিশেষজ্ঞ অ্যান্থোনি ফাউসিসহ বিশেষজ্ঞরা বলছেন, মাংকিপক্সের প্রাদুর্ভাবকে গুরুত্ব সহকারে নেওয়া এবং আরও কঠোরভাবে পরিচালনা করা দরকার।

গত বৃহস্পতিবার যুক্তরাষ্ট্রের সান ফ্রান্সিসকো থেকে প্রথম জরুরি অবস্থার ঘোষণা আসে। সেখানে আগামী সোমবার থেকেই এটি কার্যকর হতে যাচ্ছে।

যুক্তরাষ্ট্রে এ পর্যন্ত ৪ হাজার ৯০০ জনের বেশি মানুষ মাংকিপক্সে শনাক্ত হয়েছেন, এরমধ্যে ১ হাজার ২৪৭ জন নিউ ইয়র্কের। আর সান ফ্রান্সিসকোয় ২৬১ জন।

বিরল সংক্রমণ রোগ মাংকিপক্স বিশ্বজুড়ে দ্রুত শনাক্ত বাড়তে থাকায় সম্প্রতি একে বৈশ্বিক জনস্বাস্থ্য জরুরি অবস্থা জারি করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। রোগটির সংক্রমণ ঠেকাতে দরিদ্র অঞ্চলগুলোর মানুষকে রক্ষায় প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণে উন্নত দেশগুলোর প্রতি আহ্বান জানান বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মহাপরিচালক।