।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

গলায় গামছা পেঁচানো রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে করেছে। শুক্রবার রাত সাড়ে ১১ টায় স্বামীসহ বসবাসরত বিনোদপুরের ভাড়া বাসায় থেকে এ মরদেহ উদ্ধার করে।

পরে রাতেই রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।

ওই শিক্ষার্থীর নাম রিক্তা আক্তার (২১)। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। তার গ্রামের বাড়ি কুষ্টিয়া জেলায়।

রিক্তার সহপাঠীরা জানান, রিক্তার মরদেহ বর্তমানে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আছে। যদিও আত্মহত্যা বলা হচ্ছে কিন্তু ঘটনার প্রাসঙ্গিকতা, বর্ণনা এবং আলামত দেখে যথেষ্ট সন্দেহ তৈরি হয়েছে, এটা আসলেই আত্মহত্যা কিনা।

ছাত্র উপদেষ্টা তারেক নূর বলেন, পুলিশ আমাদের সুষ্ঠু তদন্তের আশ্বাস দিয়েছেন। ময়নাতদন্ত শেষে প্রকৃত সত্য জানা যাবে এমনটাই পুলিশ বলেছেন।

আইন বিভাগের সভাপতি ড. এম হাসিবুল আলম প্রধান বলেন, রিক্ততার মৃত্যুতে আমি গভীরভাবে শোকাহত ও মর্মাহত এবং দুঃখ প্রকাশ করছি। পাশাপাশি মতিহার থানার ওসির কাছে সুষ্ঠু তদন্তের দাবি জানিয়েছি।

মতিহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার আলী তুহিন বলেন, বিষয়টি নিয়ে এখন তদন্ত করা হচ্ছে, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। তদন্ত শেষে বোঝা যাবে আত্মহত্যা নাকি হত্যা।

তিনি আরও জানান, রিক্তার স্বামী এবং স্বামীর বন্ধুদের পুলিশ হেফাজতে রাখা হয়েছে।