।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

ইউক্রেনের বিভিন্ন শহরে রুশ হামলার কমপক্ষে ১৭ বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন। ইউক্রেনের কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরা।

শনিবার রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়, ইউক্রেনে যে সব এলাকায় সামরিক অভিযান চলছে সেখানে হামলা আরও তীব্র করার নির্দেশনা দিয়েছেন রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রী সের্গেই শোইগু।

আল জাজিরা বলছে, রাশিয়ার সামরিক অভিযান বর্তমানে পূর্ব দনবাস অঞ্চলকেন্দ্রীক হলেও উত্তর ও দক্ষিণ ইউক্রেনের বিভিন্ন অঞ্চলেও রুশ সামরিক বাহিনী নতুন করে হামলা করছে। এছাড়া ইউক্রেনের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর খারকিভেও সাম্প্রতিক দিনগুলোতে গুরুতর বোমা হামলা করেছে রুশ সেনারা।

আল জাজিরার প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, শনিবার খারকিভের নিকটবর্তী ও রাশিয়ান সীমান্ত থেকে মাত্র ১২০ কিলোমিটার (৭৫ মাইল) উত্তরে অবস্থিত ইউক্রেনের চুহুইভ শহরে রুশ হামলায় কমপক্ষে ৩ জন বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন। এছাড়া এই হামলায় আহত হয়েছেন আরও অন্তত তিনজন। 

সুমি অঞ্চলের আঞ্চলিক গভর্নর দিমিত্রো জাইভিতস্কি শনিবার টেলিগ্রামে বলেছেন, অঞ্চলটিতে রুশ সীমান্তের কাছেই তিনটি শহর ও গ্রামে মর্টার ও আর্টিলারি হামলা চালিয়েছে রাশিয়ার সামরিক বাহিনী। এসব হামলায় একজন বেসামরিক ব্যক্তি নিহত এবং কমপক্ষে সাতজন আহত হয়েছেন।

এছাড়া শনিবার দোনেৎস্কের গভর্নর বলেছেন, পূর্ব ইউক্রেনের এই অঞ্চলের শহরগুলোতে রুশ সেনাদের হামলায় গত ২৪ ঘণ্টায় সাতজন বেসামরিক লোক নিহত হয়েছেন। এসব হামলায় আহত হয়েছেন আরও ১৪ জন।

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ভোরে ইউক্রেনে হামলা শুরু করে রাশিয়ান সৈন্যরা। মস্কো  এই আগ্রাসনকে ‘বিশেষ সামরিক অভিযান’ বলে আখ্যায়িত করছে। এছাড়া যুদ্ধের শুরুতে পুরো ইউক্রেনীয় ভূখণ্ড আক্রান্ত হলেও রাশিয়ার সামরিক বাহিনীর মূল মনোযোগ এখন দেশটির পূর্বাঞ্চলীয় দনবাস অঞ্চল। সূত্র: আল জাজিরা