।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

দেশের রাষ্ট্রপতি ভবন দখলে নেয়ার কয়েক দিনের মধ্যে শ্রীলঙ্কায় প্রধানমন্ত্রী রণিল বিক্রমাসিংহের কার্যালয় দখলে নিয়েছে বিক্ষোভকারীরা। 

বুধবার (১৩ জুলাই) দুপুরের দিকে তারা কার্যালয়ের ফটক ভেঙে ভেতরে ঢুকে পড়ে।

এসময় সেনাবাহিনীর সদস্যরা বাধা দিয়েও সফল হয়নি। বর্তমানে তাদের নিয়ন্ত্রণেই রয়েছে বিক্রমাসিংহের কার্যালয়। 

বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের ভেতরে প্রবেশের পর আনন্দে, উল্লাসে ফেটে পড়ে বিক্ষোভকারীরা। এসময় পালিয়ে যাওয়া রাষ্ট্রপতি গোতাবায়া রাজাপক্ষে এবং প্রধানমন্ত্রী রণিলের বিরুদ্ধে শ্লোগান দিতে থাকে তারা। কার্যালয়ের ভেতরে ঢুকে বিক্ষোভকারীদের কেউ কেউ ড্রাম বাজাতে শুরু করে। এসময় বাইরে থাকা বিক্ষোভকারীরা শ্রীলঙ্কার পতাকা উড়াতে থাকে। 

তবে প্রধানমন্ত্রী রণিল এখনো নিরাপদে আছেন বলে জানা গেছে। তিনি তার কার্যালয়ে নেই এবং গত কদিন ধরেই পালিয়ে বেড়াচ্ছেন। 

প্রসঙ্গত, বিক্ষোভকারীরা এর আগে শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী রণিল বিক্রমাসিংহের বাড়িতে আগুন ধরিয়ে দিয়েছিল। তার পরিবারের কেউ তখন সেখানে ছিল না। 

রণিল বিক্রমাসিংহেকেও রাজাপক্ষের অন্যতম সহযোগি বলেই বিশ্বাস করা হয়। লুকিয়ে থাকলেও তাঁর কার্যালয়ের মাধ্যমে বেশ কিছু নির্দেশনা জারি করেছেন প্রধানমন্ত্রী রণিল। বুধবার দেশব্যাপী জরুরি অবস্থা এবং কারফিউ জারি করেন তিনি।