।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

লাতিন আমেরিকার দেশ কলম্বিয়ায় একটি কারাগারে দাঙ্গার সময় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় কমপক্ষে ৫১ কয়েদি নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন ২৪ জন।

স্থানীয় সময় মঙ্গলবার এ ঘটনা ঘটে। 

কারা কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে বুধবার এ খবর দিয়েছে বিবিসি। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দাঙ্গার সুযোগে কয়েদিরা পালিয়ে যাওয়ার ফঁন্দি করেছিল। কারারক্ষীরা যাতে এতে বাধা দিতে না পারে, সেজন্য কয়েদিরা একপর্যায়ে ম্যাট্রেসে আগুন লাগিয়ে দেয়। এরপর সেই আগুন ছড়িয়ে পড়ে।

কলম্বিয়ার বিচারমন্ত্রী উইলসন রুইজ সংবাদ সম্মেলনে বলেন, রাত ২টার দিকে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। 

কারাগারের যে ওয়ার্ডে আগুন লাগানো হয়েছিলো, সেখানে ১৮০ জন কয়েদি ছিলেন। এ ঘটনার সুযোগে কেউ পালাতে পারেনি বলে কারাগারের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

টুলুয়া শহরের বাসিন্দারা জানান, রাত ১টার দিকে তারা কারাগারের ভেতরে আগুনের শিখা দেখতে পান। আগুন লাগার পরপরই ফায়ার সার্ভিস তৎপর হয়, বেশ কিছু অ্যাম্বুলেন্সে করে আহতদের সরিয়ে নিতে দেখা যায়।

পর্তুগাল সফরে থাকা কলম্বিয়ার বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ইভান দুকে এই প্রাণহানির ঘটনায় শোক প্রকাশ করেছেন। কীভাবে এই ভয়াবহ পরিস্থিতির তৈরি হল, তা খুঁজে বের করতে তদন্তেরও নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

লাতিন আমেরিকার বেশিরভাগ দেশের মতো কলম্বিয়ার কারাগারগুলোতেও ধারণক্ষমতার চেয়ে অনেক বেশি বন্দি রাখা হয়।   দেশটির ১৩২টি কারাগারের ধারণ ক্ষমতা যেখানে ৮০ হাজার, সেখানে বন্দি আছেন ১ লাখ ১২ হাজারের বেশি মানুষ।