।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

জর্ডানের দক্ষিণাঞ্চলীয় বন্দর নগরী আকাবায় বিষাক্ত ক্লোরিন গ্যাস লিক হয়ে অন্তত ১৩ জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় অসুস্থ হয়ে পড়েছেন ২৫১ জন।

সোমবার (২৭ জুন) একটি ট্যাংক থেকে বিষাক্ত এ গ্যাস ছড়িয়ে পড়ে। এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন সরকারি মুখপাত্র ফয়সাল আল-শাবুল। খবর আল জাজিরার।

ফয়সাল জানান, পূর্ব আফ্রিকার দেশ জিবুতিতে রফতানির উদ্দেশ্যে একটি ট্যাংকারে ২৫ টন ক্লোরিন গ্যাস পূরণ করা হচ্ছিল। এ সময় বিষাক্ত এ ক্লোরিন গ্যাস লিক হয়ে যায়।

স্থানীয় সরকারি অধিদপ্তর জানিয়েছে, অসুস্থ হয়ে পড়াদের হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ঘটনা তদন্তে বন্দর নগরী বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। এ ছাড়া একদল বিশেষজ্ঞ সেখানে কাজ করছেন।

জর্ডানের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন আল-মামলাকা জানিয়েছে, ১৯৯ জন হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি হয়েছেন।

বন্দরের ওই এলাকা থেকে ২৫ কিলোমিটার দূরে একটি আবাসিক এলাকা রয়েছে। স্থানীয় স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. জামাল ওবেদাত সেখানকার বাসিন্দাদের ঘরের দরজা-জানালা বন্ধ রাখার পরামর্শ দিয়েছেন। লিক হওয়া গ্যাস বাতাসের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে।

আল-মামলাকার টুইটার পেজে একটি ভিডিয়ো পোস্ট করা হয়েছে। এতে দেখা যায়, একটি স্টোরেজ ট্যাংক থেকে হলুদ বর্ণের গ্যাস ধোঁয়ার মতো ছড়িয়ে পড়ছে।

বিশেষায়িত দলগুলো পরিস্থিতি মোকাবিলায় কাজ করে যাচ্ছে। এ ছাড়া সিভিল ডিফেন্স সার্ভিস এক ফেসবুকে পোস্টে জানিয়েছে, তারা আকাবায় একটি উদ্ধারকারী প্লেন পাঠিয়েছে।

জর্ডানের প্রধানমন্ত্রী বিশার আল-খাসাওনেহ আকাবায় পৌঁছেছেন। তিনি সেখানকার একটি হাসপাতাল পরিদর্শন করবেন, যেখানে ক্ষতির গ্যাসের শিকার অসুস্থ ব্যক্তিরা ভর্তি হয়েছেন।

গ্যাস লিকের ঘটনা তদন্তে দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর নেতৃত্বে একটি কমিটি গঠিত হয়েছে বলে জানায় আল-মামলাকা টিভি।