।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

কলম্বিয়ার কেন্দ্রস্থলে ষাঁড়ের লড়াই চলাকালে স্টেডিয়ামের একটি দর্শক স্ট্যান্ড ধসে পড়ে অন্তত ছয়জন নিহত ও শতাধিক আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন কর্মকর্তারা।

তলিমা বিভাগের এল এস্পিনালে রোববার স্টেডিয়ামটির বুলরিংয়ের ভেতরে থাকা তিন তলা ওই কাঠের স্ট্যান্ডটি ধসে পড়ে বলে জানিয়েছে নিউইয়র্ক টাইমস।

স্টেডিয়ামে সেসময় ঐতিহ্যবাহী ‘কোরালেহা’  ষাঁড়ের লড়াই উৎসব চলছিল, এ লড়াইয়ে সাধারণ মানুষের একটা অংশও রিংয়ে প্রবেশ করে ষাঁড়কে উত্তেজিত বা তার পিঠে চড়তে পারে।

প্রচলিত ঘরানার ষাঁড়ের লড়াইয়ের চেয়ে খানিকটা আলাদা ধরনের এই লড়াই শেষে ষাঁড়কে মেরেও ফেলা হয় না।

রোববার নিহতদের মধ্যে একটি এক বছর বয়সী শিশুও আছে বলে জানিয়েছে স্থানীয় গণমাধ্যম।

কাঠের স্ট্যান্ড ধসে পড়ার পর স্টেডিয়াম জুড়ে হুড়োহুড়ি শুরু হয়ে যায়, এক পর্যায়ে লড়াইয়ে থাকা ষাঁড়টি স্টেডিয়ামের বাইরে বের হয়ে রাস্তায় চলে এলে এলাকাজুড়ে আতঙ্কও ছড়িয়ে পড়ে, বলা হয় তাদের প্রতিবেদনে।

দেশটিতে মাত্রই শেষ হওয়া প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জয়ী গুস্তাভো পেত্রো এ ধরনের আয়োজন নিষিদ্ধে স্থানীয় কর্মকর্তাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

“আমি মেয়রদের অনুরোধ করছি এমন অনুষ্ঠানের অনুমতি না দিতে যেখানে মানুষ বা প্রাণী মারা পড়ে,” বলেছেন তিনি।

ষাঁড়ের লড়াই চলাকালে স্টেডিয়ামে দুর্ঘটনায় মৃত্যু কলম্বিয়ায় এবারই প্রথম নয়।

রোববারের ঘটনায় আহতদের মধ্যে অন্তত ৩০ জনের অবস্থা গুরুতর বলে জানিয়েছেন তলিমার গভর্নর হোসে রিকার্ডো ওরোজকো।

মৃতের সংখ্যা বাড়তে পারে বলে আশঙ্কাও করা হচ্ছে।

রাজধানী বোগোতা থেকে ৯৫ মাইল দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থিত ৭৫ হাজার বাসিন্দার শহর এল এস্পিনালের হাসপাতাল ও অ্যাম্বুলেন্স দিয়ে আহতদের সেবা দেওয়া সম্ভব হচ্ছে না জানিয়ে এই ঘটনার পর প্রতিবেশী শহরগুলোর সাহায্য কামনা করেছেন স্থানীয় কাউন্সিলর ইভান ফার্নি রোহাস।