।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

ঢাকা-মাওয়া এক্সপ্রেসওয়েতে ভেকু মেশিন বহনকারী একটি লরির সঙ্গে যাত্রীবাহী সিএনজি চালিত অটোরিকশার সংঘর্ষে চালকসহ পাঁচ যাত্রী নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত সোয়া ১২টায় ঢাকার দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার তেঘোরিয়া সিএনজি স্ট্যান্ডের কাছে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন অটোরিকশাচালক তমাল (১৭), যাত্রী জোনায়েদ হোসেন জিহাদ (২৩), নাহিদ হোসেন ফাহিম (২১) ও সামাদ (২০)। নিহত আরেকজনের পরিচয় এখনও জানা যায়নি। এ ছাড়া আহত আরেক যাত্রী ঢাকার স্যার সলিমুল্লাহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। নারায়ণগঞ্জ জোনের হাইওয়ে পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার অমৃত কুমার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

হাইওয়ে পুলিশ জানায়, লরিটি তেঘোরিয়া স্ট্যান্ড থেকে বামে বাঁক নেয়ার সময় পোস্তগোলা থেকে মাওয়াগামী দ্রুতগতির অটোরিকশাটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে লরির নিচে চলে যায়। এ সময় অটোরিকশাটি দুমড়েমুচড়ে যায়। স্থানীয়রা চেষ্টা করেও লরির নিচ থেকে যাত্রীদের বের করতে না পারায় ঘটনাস্থলেই চারজনের মৃত্যু হয়। আহত অবস্থায় দুজনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরও একজনের মৃত্যু হয়। লরিটি জব্দ করা হলেও পালিয়ে গেছেন চালক।

ঢাকা-মাওয়া হাইওয়ে পুলিশের ওসি আফজাল হোসেন জানান, লরি-অটোরিকশার সংঘর্ষে পাঁচ জনের মৃত্যু হয়েছে ও একজন ঢাকার স্যার সলিমুল্লাহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।