।। বার্াকক্ষ প্রতিবেদন ।।

আসামে বন্যার মধ্যে স্রোতের তোড়ে দাঁড়িয়ে থাকা একটি ট্রেনের অনেকগুলো বগির উল্টে যাওয়ার ভিডিয়ো অনলাইনে ছড়িয়ে পড়েছে।

মাত্র কয়েক মিনিটের মধ্যে খেলনার মতো একের পর এক বগি উল্টানোর চিত্রই সেখানকার বন্যা পরিস্থিতির ভয়াবহতা বোঝাচ্ছে বলে জানিয়েছে আনন্দবাজার।

সংবাদমাধ্যমটি লিখেছে, মাত্র কয়েক মিনিট। গোটা হাফলং স্টেশনকে গ্রাস করে ফেলল জল-কাদার স্রোত। পুরো চেহারাই বদলে গেল স্টেশনের। কোথায় স্টেশন! কয়েক মিনিটে চারপাশ যেন একটা স্রোতস্বিনীর চেহারা নিয়ে ফেলেছিল। চারদিকটা ঘোলা। অঝোরে বৃষ্টি চলছিল। তার মধ্যেই গাছ, কাঠ, ধ্বংসস্তূপ ঠেলে নিয়ে স্টেশনেই দাঁড়িয়ে থাকা একটি গোটা ট্রেনের উপর আছড়ে পড়ল সেই জল।

খেলনার মতো একের পর এক বগি উল্টে দিল সেই জলের স্রোত।

বন্যার কারণে রোববার থেকে হাফলঙের সঙ্গে সড়ক, রেল যোগাযোগ পুরোপুরি বিচ্ছিন্ন।

এ দফার বন্যায় এরই মধ্যে ভারতের উত্তরপূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশটির বাজালি, বাকসা, কাছাড়, চরাইদেও, দারাং, ধেমাজি, ডিব্রুগড়, ডিমা হাসাও, কামরূপ, কার্বি আলং, নওগাঁও, শোনিতপুর, মাজুলি এবং হোজাই-সহ ২০টি জেলা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

এর মধ্যে সবচেয়ে ভয়াবহ অবস্থা হোজাই এবং কাছাড় জেলার। বন্যা ও ভূমিধসে বেশ কয়েকজনের মৃত্যুরও খবর পাওয়া গেছে।