।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

ভুয়া বা স্প্যাম অ্যাকাউন্ট থাকার অভিযোগে টুইটার কেনার চুক্তি আপাতত স্থগিত ঘোষণা করলেন ইলন মাস্ক। ২৬৬ মিলিয়ন মনিটাইজযোগ্য ডেইলি অ্যাকটিভ ইউজারদের মধ্যে এই ভুয়া বা স্প্যাম অ্যাকাউন্টের পরিমাণ ৫ শতাংশেরও নিচে। রয়টার্সের বরাতে ৪৪ বিলিয়ন ডলার দিয়ে টুইটার কেনার ঘোষণা দিয়েছিলেন মাস্ক। এখন তিনি প্রতিষ্ঠানটির হিসাব দেখতে চাচ্ছেন।

একটি টুইট বার্তায় মাস্ক জানান, হিসেব থেকে যা দেখা যাচ্ছে যে পরিমাণ ব্যবহারকারী থাকার কথা ছিল বাস্তবে দেখা যাচ্ছে তার চেয়ে ৫ শতাংশ কম ব্যবহারকারী রয়েছে।

এদিকে এই খবর প্রকাশ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে টুইটারের শেয়ার মূল্য ১৯ শতাংশ নেমে গিয়েছে। অপরদিকে টেসলার শেয়ার বেড়েছে ৫ শতাংশ। ইতোপূর্বেও টুইটারের হিসেবে সমস্যা ছিল। কয়েক সপ্তাহ আগেই জানা যায়, গত তিন বছর হলো ডেইলি ইউজার বেশি করে দেখানো হচ্ছে। প্রতিষ্ঠানটি জানায়, যান্ত্রিক সমস্যার কারণে ভুয়া অ্যাকাউন্টগুলো গণনায় উঠে আসছে।

ভার্জ জানায়, মাস্ক টুইটারের “স্প্যাম অ্যান্ড স্ক্যাম বটস” এবং “বট আর্মিজ” ফিচার দুটির খরচ কমিয়ে আনছেন। এর পরিবর্তে বাক-স্বাধীনতা এবং ওপেন সোর্সিংকে গুরুত্ব দিচ্ছেন। তবে এই স্থগিতাদেশের খবর থেকেই বুঝা যাচ্ছে মাস্কের টুইটার কেনার বিষয়টি সোশাল মিডিয়া নেটওয়ার্কে কতোটা প্রভাব ফেলেছিল বলে মন্তব্য করে ভার্জ।