।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি বলেছেন, আগ্রাসনকারী রুশ বাহিনী নির্যাতন ও কাপুরুষতাকে বেছে নিয়েছে। ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলে রাশিয়া ‘আরও বড় আকারের’ অভিযান চালাতে পারে বলে সতর্ক করেন তিনি। এই অভিযানের বিষয়ে নিজ দেশের নাগরিকদের প্রস্তুতি নেয়ার তাগিদ দেন জেলেনস্কি। রোববার রাতে এক ফেসবুক ভিডিও বার্তায় এসব কথা বলেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট।

জেলেনস্কি বলেন, ‘তারা আমাদের বিরুদ্ধে আরও বেশি ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করতে পারে, এমনকি আরও বেশি আকাশ থেকে বোমা ফেলতে পারে। কিন্তু আমরা তাদের পদক্ষেপের জন্য প্রস্তুত। আমরা জবাব দেবো।’

ইউক্রেনের বেসামরিকদের মৃত্যু তাদের নিজেদের সামরিক অভিযানের ফলাফল বলে রাশিয়া যে দাবি করেছে তা প্রত্যাখ্যান করেন জেলেনস্কি। তিনি বলেন, এটা রাশিয়ার দুর্বলতার চিহ্ন।

জেলেনস্কি বলেন, ‘তারা বুচার হত্যাকাণ্ড নিয়ে বলছে এগুলো তাদের নয়, আমাদের দিকে অভিযোগ করেছ। বুঝতে পারছেন কেন এটা করছে? কাপুরুষতার জন্য।’ তিনি বলেন, ‘তারা স্বীকার করতে ভয় পাচ্ছে যে কয়েক দশক ধরে ইউক্রেনের প্রতি রাশিয়ার নীতি ভুলে ভরা।’

ইউক্রেনের নেতা বলেন, ভুল স্বীকার না করে রাশিয়া নতুন ভুল করছে। তিনি বলেন, ‘তারা রাজনৈতিক কোনও সমাধান থেকে নিজেদের বঞ্চিত করছে এবং এই যুদ্ধ শুরুর অবাস্তব আকাঙ্ক্ষা বাদ দিতে অনিচ্ছুক। এর সবকিছুই আসছে কাপুরুষতা থেকে।’

জেলেনস্কি বলেন, ‘যখন ভয় বেড়ে যায়, তখন তা বিপর্যয়ে মোড় নেয়। মানুষ যখন তাদের ভুল স্বীকারের, ক্ষমা চাওয়ার, বাস্তবতা মেনে নেওয়ার সাহস হারায়, তখন তারা দানবে পরিণত হয়। আর পৃথিবী যখন এগুলো অবজ্ঞা করে, তখন দানব সিদ্ধান্ত নেয় যে, পৃথিবীকে তাদের মেনে নিতে হবে।’

ইউক্রেন এর সব কিছুই থামাবে, বলেন জেলেনস্কি।

সূত্র: বিবিসি