।। শিল্প ও সাহিত্য ডেস্ক ।।

বাংলা একাডেমি প্রবর্তিত রবীন্দ্র পুরস্কার-২০২১ দেয়া হয়েছে। এ পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন বিশিষ্ট রবীন্দ্র-গবেষক এবং অর্থনীতিবিদ অধ্যাপক আতিউর রহমান।

রোববার (১০ এপ্রিল) বাংলা একাডেমির শহিদ মুনীর চৌধুরী সভাকক্ষে এই পুরস্কার দেয়া হয়। 

পুরস্কারপ্রাপ্ত লেখকের হাতে পুষ্পস্তবক, সনদ, সম্মাননা স্মারক ও পুরস্কারের অর্থমূল্য এক লাখ টাকার চেক তুলে দেন বাংলা একাডেমির সভাপতি সেলিনা হোসেন ও মহাপরিচালক মুহম্মদ নূরুল হুদা।

বাংলা একাডেমির সভাপতি কথাসাহিত্যিক সেলিনা হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক।

স্বাগত বক্তব্যে কবি মুহম্মদ নূরুল হুদা বলেন, রবীন্দ্র-গবেষণা এবং রবীন্দ্রসংগীত চর্চায় জীবনব্যাপী অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ বাংলা একাডেমি ২০১০ সাল থেকে ‘রবীন্দ্র পুরস্কার’ প্রবর্তন করে। ড. আতিউর রহমানসহ এ পর্যন্ত ২৪ জন গুণী ব্যক্তিকে আমরা এ পুরস্কার দিয়েছি। ড. আতিউর রহমানের গবেষণা থেকে আমরা রবীন্দ্রনাথের আর্থসামাজিক ভাবনা এবং মানব-হিতৈষণা সম্পর্কে বিশদ ধারণা লাভ করি।

পুরস্কারপ্রাপ্তির অনুভূতি ব্যক্ত করেন ড. আতিউর রহমান বলেন, বাংলা একাডেমির রবীন্দ্র পুরস্কার-প্রাপ্তি জীবনের বিশেষ অর্জন। এই পুরস্কার রবীন্দ্র গবেষণা ও চর্চায় আরও নিবিড়ভাবে নিবিষ্ট হওয়ার প্রেরণা যোগাবে।

সভাপতির বক্তব্যে সেলিনা হোসেন বলেন, বাংলাদেশে রবীন্দ্রচর্চার বিভিন্ন ধারার মধ্যে রবীন্দ্রনাথের আর্থসামাজিক দিক নিয়ে গবেষণা গুরুত্বপূর্ণ। আতিউর রহমান এই ধারার একজন পথিকৃৎ গবেষক। তিনি তার বেশ কিছু গ্রন্থে মানববাদী রবীন্দ্রনাথের তৃণমূললগ্নতা এবং পূর্ববঙ্গে তার দরিদ্রবান্ধব পদক্ষেপের পরিচয় অনুসন্ধানী দৃষ্টিতে উপস্থাপন করেছেন।