।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

নওগাঁর মহাদেবপুরে মাদরাসার টয়লেটের সেপটিক ট্যাংক থেকে আব্দুর রহমান (৫) নামে এক শিশুর মরদেহ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (৩১ মার্চ) দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে শিবরামপুর হাফেজীয়া ও কওমি মাদরাসার টয়লেটের সেপটিক ট্যাংক থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

নিহত আব্দুর রহমান উপজেলার উত্তরগ্রাম ইউনিয়নের ভালাইন মোল্লাপাড়া গ্রামের রহিদুল ইসলামের ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, অন্যান্য দিনের মত বৃহস্পতিবার বিকেলে শিশু আব্দুর রহমান তার বাবার সঙ্গে শিবরামপুর মোড়ে চা পান করতে যায়। চা পানের পর তার বাবা রহিদুল ইসলাম ছেলেকে বাইরে রেখে মাগরিবের নামাজ আদায় করার জন্য শিবরামপুর হাফেজীয়া ও কওমি মাদরাসার মসজিদের ভেতরে যান। নামাজ আদায় শেষে এসে তার সন্তানকে আর দেখতে পান না। তাৎক্ষণিক মাদরাসার চারপাশে ও মোড়ের সব জায়গায় খোঁজাখুঁজির পর একপর্যায়ে রাত সাড়ে ৯টার দিকে মাদরাসার টয়লেটের ট্যাংক এর পাশে তার জুতা দেখতে পান। এরপর তিনি একটা লাঠি দিয়ে টয়লেটের ট্যাংকের ভেতর নাড়াচাড়া করতেই তার বাচ্চার মরদেহটি দেখতে পান। তাৎক্ষণিকভাবে থানা পুলিশে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

মহাদেবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজম উদ্দিন মাহমুদ জানান, সংবাদ পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে নিহত শিশুর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের অবহিত করা হয়েছে তারা এসে যে সিদ্ধান্ত দেবেন সে অনুযায়ী পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়া হবে।