।। শোবিজ প্রতিবেদন ।।

সুইজারল্যান্ডের নাট্যকার, অভিনেতা ও নির্দেশক পিটার রিনডার্কনেস্ট প্রায় ৩৫ বছর ধরে মঞ্চে কাজ করছেন। তার ঝুলিতে আছে ৩০-এর বেশি নাট্য প্রযোজনা। এর মধ্যে ‘মাইনর ম্যাটারস’ মঞ্চায়ন করতে ঢাকায় এসেছেন তিনি।

‘মাইনর ম্যাটারস’-এর গল্প একজন কৃষককে কেন্দ্র করে। সে ক্ষেত-খামার সামলাতো ও গৃহপালিত পশুর যতœ নিতো। এসব নিয়েই তৃপ্ত ছিল। কিন্তু হঠাৎ তার মনে হলো, কী যেন নেই! উদয়াস্ত জীবন তার বড় নিস্তরঙ্গ। তাই এক শনিবার সন্ধ্যায় সে নিজ শহরে যায়। সেখানে হৃৎকমলের নারীর সঙ্গে ঘর বাঁধে। এতদিনে জীবন যেন সুখী ও সম্পূর্ণ মনে হলো তার। কিন্তু শূন্যতার ভেতর যেমন অঙ্কুরিত হয় কবিতা, ঠিক তেমনই সবকিছু ভেঙে পড়ে আবার।

ঢাকায় ‘মাইনর ম্যাটারস’ নাট্যপ্রদর্শনীর আয়োজন করেছে ফরাসি সাংস্কৃতিক কেন্দ্র আলিয়ঁস ফ্রঁসেজ। বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালায় আগামী ১৮ মার্চ সন্ধ্যা ৭টায় এটি অনুষ্ঠিত হবে। পিটার রিনডার্কনেস্টের ১ ঘণ্টা ব্যাপ্তির নাটকটি বিনামূল্যে উপভোগ করা যাবে। প্রত্যেক দর্শনার্থীকে মিলনায়তনে প্রবেশের সময় দেখাতে হবে করোনার টিকা গ্রহণের সনদ।

আলিয়ঁস ফ্রঁসেজের প্রোগ্রাম অফিসার মামুন অর রশিদ জানান, ফ্রাঙ্কোফোনি উৎসব উপলক্ষে ‘মাইনর ম্যাটারস’ নাট্য প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়েছে। প্রতিবছর ২০ মার্চ সারা পৃথিবীর ফরাসি ভাষা ব্যবহারকারী দেশগুলো আন্তর্জাতিক ফ্রাঙ্কোফোনি দিবস উদযাপন করে থাকে। আন্তর্জাতিক ফ্রাঙ্কোফোনি সংস্থা গঠন করা হয় ১৯৭০ সালে। বর্তমানে ৩২টি দেশের রাষ্ট্রভাষা ফরাসি।