।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

পটুয়াখালীর দুমকিতে দুই মোটরসাইকেল ও পিকআপের ত্রিমুখী সংঘর্ষে তিনজন নিহত ও দুইজন আহত হয়েছেন। শনিবার (১২ মার্চ) বেলা ১১টার দিকে বাউফল-দুমকি সড়কের মুরাদিয়া বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- ইউসুফ মাস্টার (৩৩), হীরা আকন (১৮) ও বায়েজিদ (১৪)। নিহত ইউসুফ পটুয়াখালী সদর উপজেলার ছোটবিঘাই ইউনিয়নের অফিসের হাট এলাকার এলাকার সফিকুল ইসলাম গাজীর ছেলে। তিনি দুমকি উপজেলার চরগরাব্দি আবুল কালাম মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক ছিলেন। হিরা একই উপজেলার লাউকাঠি এলাকার আনোয়ার আকনের ছেলে। তিনি লাউকাঠি মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে এ বছর এসএসসি পাস করেছেন। বায়োজিদ হীরা আকনের ভাগ্নে। তার বাড়ি বাড়ি শিয়ালীর মিঠাপুর গ্রামে। আহতদের উদ্ধার করে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

আহতরা জানান, বেলা ১১টার দিকে ইউসুফ ও হাবিবুর রহমান মোটরসাইকেলযোগে বাউফলের বগা ফেরিঘাটের উদ্দেশে রওনা দেন। মুরাদিয়া বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয় এলাকায় পৌঁছালে তাদের পেছন থেকে আসা বায়েজিদের মোটরসাইকেলটি ধাক্কা দেয়। এ সময় বগা থেকে ছেড়ে আসা পিকআপের সঙ্গে ত্রিমুখী সংঘর্ষ হয়। ঘটনাস্থলেই বায়েজিদ নিহত হন। পরে বরিশাল নেওয়ার পথে ইউসুফ ও হীরাও প্রাণ হারান।

দুমকি থানার ওসি আবদুস সালাম জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। পিকআপের চালক ও হেলপারকে আটক করা হয়েছে। পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।