।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

ইউক্রেনের মারিয়োপোল শহরের একটি ম্যাটারনিটি ও শিশু হাসপাতালে রুশ বিমান হামলায় অন্তত ১৭ জন আহত হয়েছে। রাজধানী কিয়েভ থেকে দেয়া এক ভিডিয়ো বার্তায় এই হামলাকে যুদ্ধাপরাধ আখ্যা দিয়েছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি।

জেলেনস্কি বলেন, ‘এটা কোন ধরনের রাশিয়ান ফেডারেশন, যারা হাসপাতাল এবং ম্যাটারনিটি হাসপাতাল ভয় পায় আর সেগুলো ধ্বংস করে? ম্যাটারনিটি হাসপাতালের কেউ কি রুশ-ভাষীদের নিপীড়ন করেছে? এটা কী?’

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘এই সহিংসতা মাত্রা ছাড়িয়ে গেছে। আগ্রাসনকারীরা মারিয়োপোল শহরে যা করছে তা ইতোমধ্যেই সহিংসতার মাত্রা ছাড়িয়ে গেছে আজ আমাদের সবাইকে রাশিয়ার এই যুদ্ধাপরাধের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।’ তিনি বলেন, ‘ম্যাটারনিটি হাসপাতালে হামলা ইউক্রেনে গণহত্যা অব্যাহত থাকার চূড়ান্ত প্রমাণ।’

ইউরোপীয় নাগরিকদের উদ্দেশে ইউক্রেনীয় প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘আপনারা বলতে পারবেন না যে, ইউক্রেনে কী ঘটেছে তা দেখেননি, মারিয়োপোলের বাসিন্দাদের সঙ্গে কী ঘটেছে তা দেখেননি। আপনারা দেখেছেন, আপনারা জানেন।’

রাশিয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা বাড়াতে এবং চাপ তৈরি করে মস্কোকে আলোচনায় বসতে বাধ্য করতে পশ্চিমাদের প্রতি আহ্বান জানান ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট। তিনি বলেন, ‘আমরা ডনেস্ক, লুহানস্ক কিংবা অন্য কোনও শহরে এই একই ধরনের যুদ্ধাপরাধ কোনও দিন করিনি, আর ভবিষ্যতেও করবো না।’