।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

রাশিয়ার বিরুদ্ধে ইউক্রেনে শিশু হাসপাতালও ধ্বংস করে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। বুধবার মারিউপোল সিটি কাউন্সিলের তরফে এমন অভিযোগ করা হয়। কাউন্সিল জানিয়েছে, সেখানে রাশিয়ার বিমান হামলায় একটি শিশু হাসপাতাল ধ্বংস হয়ে গেছে। তবে তাৎক্ষণিকভাবে হতাহতের কোনও সংখ্যা জানা যায়নি। এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা।

কাউন্সিলের এক অনলাইন পোস্টে বলা হয়েছে, ‘দখলদার রুশ বাহিনী শিশুদের হাসপাতালে বেশ কয়েকটি বোমা ফেলেছে। ধ্বংসযজ্ঞের মাত্রা বিশাল।’

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি অভিযোগ করেছেন, মারিউপোল হাসপাতাল কমপ্লেক্সে রাশিয়ান বাহিনী ‘সরাসরি হামলা’ চালিয়েছে।

টুইটারে দেয়া পোস্টে এই হামলাকে নৃশংসতা হিসেবে উল্লেখ করে জেলেনস্কি বলেন, ‘লোকজন, শিশুরা ধ্বংসস্তূপের নিচে রয়েছে। বিশ্ব আর কতকাল সন্ত্রাসকে উপেক্ষা করে তাদের সহযোগী হয়ে থাকবে? এই মুহূর্তে আকাশসীমা বন্ধ করুন! হত্যা বন্ধ করুন। আপনার ক্ষমতা আছে, কিন্তু দৃশ্যত আপনি মানবতা হারিয়ে ফেলছেন।’

এদিকে নিজ দেশে রুশ আগ্রাসন নিয়ে আন্তর্জাতিক মিডিয়ায় খোলা চিঠি লিখেছেন ইউক্রেনের ফার্স্টলেডি ওলেনা জেলেনস্কা। মঙ্গলবার লেখা এই চিঠিতে ইউক্রেনীয় শিশুসহ বেসামরিকদের ওপর ক্রেমলিন ব্যাপক হত্যাকাণ্ড চালাচ্ছে বলে অভিযোগ করেন তিনি। তিনি বলেন, ‘২৪ ফেব্রুয়ারি, আমরা সবাই রুশ আগ্রাসনের ঘোষণায় জেগে উঠলাম। ট্যাংক ইউক্রেনীয় সীমানায় ঢুকে পড়লো, প্লেন আমাদের আকাশে ঢুকলো, ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপক আমাদের শহরগুলো ঘিরে ফেললো। ক্রেমলিনপন্থী প্রপাগান্ডা মাধ্যমগুলো একে বিশেষ অভিযান হিসেবে আখ্যা দিতে শুরু করে। তবে প্রকৃত ঘটনা হলো, ইউক্রেনের বেসামরিকদের ব্যাপকভাবে হত্যা করা হচ্ছে।’