।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

দেশে শুরু থেকে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাস প্রতিরোধী টিকার আওতায় এসেছে ১২ কোটি ৪৭ লাখ মানুষ। কেবল গত ১৩ দিনেই টিকা দেয়া হয়েছে দুই কোটি ৩২ লাখ মানুষকে। বুধবার (২ মার্চ) স্বাস্থ্য অধিদফতরের নিয়মিত অনলাইন বুলেটিনে এ তথ্য জানান কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন ব্যবস্থাপনা টাস্কফোর্স কমিটির সদস্য সচিব ডা. মো. শামসুল হক।

ডা. শামসুল হক বলেন, ‘গত ১৭ ফেব্রুয়ারি থেকে আমরা একটা বিশেষ ক্যাম্পেইনের আয়োজন করি। ১৭ ফেব্রুয়ারি থেকে ১ মার্চ পর্যন্ত বিশেষভাবেই এটার দিকে নজর দেয়া হয়, ক্যাম্পেইন এবং ক্যাম্পেইনের সময় বেশি মানুষকে টিকার আওতায় আনার জন্য। আর এই ১৭ ফেব্রুয়ারি থেকে ১ মার্চ পর্যন্ত প্রথম ডোজ টিকা দেওয়া হয়েছে দুই কোটি ৩২ লাখ মানুষকে। দ্বিতীয় ডোজ টিকা দেয়া হয়েছে এক কোটি সাত লাখ মানুষকে। সঙ্গে বুস্টার ডোজ দেয়া হয়েছে ১০ লাখ মানুষকে।’

তিনি বলেন, ‘সেই হিসাবে ১৭ ফেব্রুয়ারি থেকে ১ মার্চ পর্যন্ত মোট তিন কোটি ৪৯ লাখ মানুষকে টিকার আওতায় আনতে পেরেছি বিভিন্ন ডোজে।’

দেশে এখন পর্যন্ত ২৯ কোটি ৬৪ লাখ টিকা পাওয়া গেছে জানিয়ে ডা. শামসুল হক বলেন, ‘এর মধ্যে প্রথম ডোজ দিয়েছি ১২ কোটি ৪৭ লাখ মানুষকে, দ্বিতীয় ডোজ দিয়েছি ৮ কোটি ৪৮ লাখ মানুষকে এবং বুস্টার ডোজ পেয়েছেন ৩৯ লাখ মানুষ।’

আর স্কুলের ১ কোটি ৬৯ লাখ শিক্ষার্থীও পেয়েছেন টিকা।

প্রসঙ্গত, দেশে গত বছরের ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে করোনাভাইরাস প্রতিরোধী টিকাদান কার্যক্রম শুরু হয়।