।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

চাঁদপুরের ডাকাতিয়া নদীতে বালুবাহী বাল্কহেডের সঙ্গে মাটিবাহী ট্রলারের সংঘর্ষে পাঁচজন নিহত হয়েছেন। সোমবার (৩১ জানুয়ারি) সকাল পৌনে ৭টায় সদর উপজেলার মোমিনপুর এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন—কুমিল্লার মুরাদনগরের মো. আউয়াল মাঝি (৬৫), একই এলাকার মো. মোবারক হোসেন (৫৫), তিতাস উপজেলার মো. নাসির উদ্দিন (৩৫), রঘুনাথপুর এলাকার নজরুল (৪০) ও মুরাদনগরের পুকুরিয়া এলাকার আল-আমিন (৩৫)।

কোস্টগার্ডের কন্টিজেন কমান্ডার মো. নাসির উদ্দিন জানান, সকালে বালুভর্তি বাল্কহেড ও মাটিভর্তি ট্রলারের সঙ্গে সংঘর্ষ ঘটে। এরপর ছয় জন সাঁতরে তীরে উঠলেও পাঁচজন নিখোঁজ হন। কোস্টগার্ড স্টেশন কমান্ডার লেফট্যানেন্ট মাশহাদ উদ্দিন নাহিয়ানের নির্দেশে উদ্ধার অভিযানে অংশ নিয়েছি। আমরা একজনের মরদেহ এবং ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল চারজনের মরদেহ উদ্ধার করেছে।

দুর্ঘটনাকবলিত ট্রলার থেকে সাঁতরে তীরে ওঠা শ্রমিকদের একজন ফরিদ হোসেন। তিনি জানান, ‘মাটিভর্তি ট্রলার নিয়ে আমাদের সাইট দিয়েই যাচ্ছিলাম। মোমিনপুর এলাকায় পার হওয়ার সময় কুয়াশায় কারণে উল্টো দিক থেকে আসা এমভি ইকবাল হোসেন-১ নামে একটি বালুবাহী বাল্কহেড ট্রলারে ধাক্কা দেয়। এতে আমাদের ট্রলার ডুবে যায়। ট্রলারে থাকা ১১ জনের মধ্যে পাঁচজন মারা গেছে।’

চাঁদপুর নৌথানার ওসি মো. মুজাহিদুল ইসলাম বলেন, ঘন কুয়াশার কারণে সকাল পৌনে ৭টা বাল্কহেড ও ট্রলারের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। নৌপুলিশ, কোস্টগার্ড ও নৌ ফায়ার সার্ভিস উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করছে।