।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

করোনা টিকার বুস্টার ডোজ দেওয়ার ন্যূনতম বয়স কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এখন থেকে ৪০ বছর বয়স হলেই বুস্টার নেওয়া যাবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। রোববার (৩০ জানুয়ারি) রাজধানীর মহাখালীতে বাংলাদেশ কলেজ অব ফিজিশিয়ানস অ্যান্ড সার্জনস (বিসিপিএস) প্রাঙ্গণে এক ব্রিফিংয়ে তিনি এ কথা জানান।

গেল ১৯ ডিসেম্বর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের জ্যেষ্ঠ নার্স রুনু ভেরোনিকা কস্তাকে প্রথম বুস্টার ডোজ দিয়ে করোনার তৃতীয় এই ডোজ দেওয়া শুরু হয়। শুরুর দিকে ষাটোর্ধ্ব নাগরিক ও সম্মুখসারির কর্মীদের বুস্টার ডোজ দেওয়া হয়। পরে চলতির মাসের মাঝামাঝি সময়ে এসে বুস্টার ডোজের বয়সসীমা কমিয়ে ৫০ করা হয়, এবার আরেক দফায় তা কমিয়ে ৪০ বছর করা হলো।

ব্রিফিংয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘বুস্টার ডোজের বয়সসীমা আমরা ৪০ এ নামিয়ে এনেছি। অনেকেই বুস্টার ডোজ নিচ্ছে না। তাই এই বয়সসীমা কমিয়ে আনা হয়েছে।’

প্রসঙ্গত, দ্বিতীয় ডোজ পাওয়ার ছয় মাস পরই শুধু বুস্টার ডোজ নেওয়া যাচ্ছে। ইতিমধ্যে দুই ডোজ টিকা নিয়েছেন, এমন ব্যক্তিরাই বুস্টার ডোজ হিসেবে তৃতীয় ডোজ পাচ্ছেন। এ জন্য নতুন করে নিবন্ধনের দরকার হচ্ছে না।