।। নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী ।।

সাম্প্রতিক সময়ে রাজশাহী টেলিভিশন জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনে (আরটিজেএ) উদ্ভূত অপ্রত্যাশিত ও অনাকাঙ্ক্ষিত সংকট নিরসনে সাংগঠনিক রীতিনীতি ও গঠনতন্ত্র অনুসরনের বিকল্প নেই বলে মত দিয়েছেন সংগঠনটির উল্লেখযোগ্যসংখ্যক সদস্য। শনিবার (২৯ জানুয়ারি ২০২২) সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি শ. ম. সাজুর আহ্বানে আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় অংশ নিয়ে তারা এই মতামত ব্যক্ত করেন।

এক সংবাদবিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, সাম্প্রতিক সময়ে সংগঠনের নামে নির্বাহী কমিটির মধ্যে বিবৃতি-পাল্টা বিবৃতির বিষয়টিকে দুঃখজনক ও অনভিপ্রেত বলে মত প্রকাশ করে এমন আচরণের নিন্দা জানানো হয় ওই মতবিনিময় সভায়। সংগঠনের নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদককে যে প্রক্রিয়ায় ‘অপসারণ’ করার কথা জানানো হয়েছে, সেটি অগঠনতান্ত্রিক ও অসাংগঠনিক বলে ঐক্যমত পোষণ করেন সভায় অংশগ্রহণকারীরা। এছাড়া গত ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২১ তারিখে সংগঠনের কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় বিগত কমিটির সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে সংগঠনের নামে সরকারি চাল আত্মসাতের অভিযোগ তদন্তে গঠিত কমিটির তদন্ত প্রতিবেদনের আলোকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্টদের তাগিদ দেয়া হয়।

সংবাদবিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, মতবিনিময় সভায় উপস্থিত সদস্যরা একমত হন যে, বারবার অনুরোধের পরেও সাধারণ সভা আহ্বান না করে স্বেচ্ছাচারী আচরণের কারণে আরটিজেএ নিদারুণ জটিলতার মুখোমুখি হয়েছে। এই জটিলতা নিরসনে মতবিনিময় সভা থেকে আগামী ১৫ দিনের মধ্যে সংগঠনের সাধারণ সভা আহ্বানের জন্য নির্বাহী কমিটির প্রতি আহ্বান জানানো হয়। মতবিনিময় সভায় অংশগ্রহণকারীরা দ্ব্যর্থহীনভাবে বলেন যে, সকলের অংশগ্রহণে তিল তিল করে এই সংগঠন গড়ে তোলা হয়েছে। সে কারণে এর ঐক্য বিনষ্ট করা অথবা সংগঠনকে ক্ষতিগ্রস্ত কিংবা বিভক্ত করার কোনো ধরনের অপচেষ্টা এর সদস্যরা মেনে নেবেন না।