।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

ভারতে একদিনে আরও দুই লাখ ৬৪ হাজার ২০২ জন নতুন কোভিড রোগী শনাক্তের খবর এসেছে, যা আগের দিনের চেয়ে ৬ দশমিক ৭ শতাংশ বেশি।

আগের দিন সেখানে শনাক্ত হয়েছিলো দুই লাখ ৪৭ হাজারের বেশি রোগী। ফলে বুধ ও বৃহস্পতিবার মিলিয়ে ৪৮ ঘণ্টায় ভারতে রোগী বাড়ল ৫ লাখ ১১ হাজার বেশি।

ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, গত মে মাসের পর এখন পর্যন্ত এটাই একদিনে শনাক্ত রোগীর সর্বোচ্চ সংখ্যা।

করোনাভাইরাসের ডেল্টা ধরনের দাপটে গতবছর মার্চ-এপ্রিল-মে মাসে ভয়ঙ্কর বিপর্যয়ের মধ্যে দিয়ে যেতে হয় ভারতকে। সে সময় ৭ মে রেকর্ড ৪ লাখ ১৪ হাজার রোগী শনাক্ত হয়।

এনডিটিভি জানিয়েছে, নমুনা পরীক্ষার তুলনায় দৈনিক শনাক্ত রোগীর হার আরও বেড়েছে। এক দিনের ব্যবধানে সাড়ে ১৩ শতাংশ থেকে বেড়ে ১৪ দশমিক ৭ শতাংশে পৌঁছেছে।

ভারতে সব মিলিয়ে শনাক্ত কোভিড রোগীর সংখ্যা ৩ কোটি ৬৩ লাখে পৌঁছেছে। এর মধ্যে ওমিক্রন ধরনটি শনাক্ত হয়েছে ৫ হাজার ৭৫৩ জনের মধ্যে।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের হিসাবে শুক্রবার সকাল পর্যন্ত সক্রিয় কোভিড রোগীর সংখ্যা ১২ লাখ ৭২ হাজার ৭৩ জন, যা মোট সংক্রমিতের ৩ দশমিক ৪৮ শতাংশ।

গত এক দিনে আরও ৩১৫ জনের মৃত্যু হওয়ায় মহামারীতে ভারতে মৃত্যুর মোট সংখ্যা ৪ লাখ ৮৫ হাজার ৩৫০ জনে পৌঁছাল।

এদিকে দিল্লিতে বৃহস্পতিবার একদিনে ২৮ হাজার ৮৬৭ জন কোভিড রোগী শনাক্তের রেকর্ড হয়েছে। সেখানে প্রতি তিনজনের নমুনা পরীক্ষায় একজন পজিটিভ হিসেবে শনাক্ত হচ্ছেন। 

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী দেশবাসীকে টিকা নেয়ার আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, তার সরকার এখন পর্যন্ত দেশের ৭০ শতাংশ প্রাপ্তবয়স্ককে দুই ডোজ কোভিড টিকা দিতে পেরেছে।