grand river view

।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

বিশিষ্ট লেখক ও অনুবাদক শেখ আবদুল হাকিম আর নেই (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

শনিবার (২৮ আগস্ট) দুপুর একটার দিকে রাজধানীর মাদারটেকের বাসায় তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৫ বছর।

শেখ আবদুল হাকিমের মেয়ে শেখ আপালা হাকিম বলেন, আব্বা দীর্ঘদিন ধরে শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন। আমরা তাকে নেবুলাইজ করতাম, সুস্থ হয়ে উঠতেন। শনিবার হঠাৎ করে তিনি মারা যান। আমরা হাসপাতাল নেয়ারও সুযোগ পাইনি।

সেবা প্রকাশনীর বিখ্যাত গোয়েন্দা সিরিজ ‘মাসুদ রানা’র জনক কাজী আনোয়ার হোসেন হলেও এর ২৬০টি বই লিখেছেন শেখ আবদুল হাকিম। যদিও বইগুলোতে তার নাম দেয়া হয়নি।

২০২০ সালের জুন মাসে কপিরাইট অফিসে মামলা দায়ের করে জয়লাভ করেন শেখ আবদুল হাকিম। তবে কাজী আনোয়ার হোসেনের আপিলের পর বিষয়টি বিচারাধীন রয়েছে।

‘মাসুদ রানা’ ছাড়াও রোমান্টিক, অ্যাডভেঞ্চারসহ নানা স্বাদের বই লিখেছেন তিনি। অনেক বছর মাসিক ‘রহস্য পত্রিকা’র সহকারী সম্পাদক হিসেবে যুক্ত ছিলেন। তার প্রথম উপন্যাসের নাম ‘অপরিণত পাপ’। প্রকাশিত বইয়ের মধ্যে রয়েছে  ‘জুতোর ভেতর কার পা’, ‘আতংক,’ ‘সোমালি জলদস্যু’, ‘আইডিয়া’, ‘লব্ধ সৈকত’, ‘জ্যান্ত অতীত’, ‘তাহলে কে?’, ‘চন্দ্রাহত’, ‘সোনালি বুলেট’ প্রভৃতি।

অনুবাদগ্রন্থের মধ্যে রয়েছে এরিক মারিয়া রেমার্কের ‘দ্য ব্ল্যাক অবিলিস্ক’, ‘অল কোয়ায়েট অন দ্য ওয়েস্টার্ন ফ্রন্ট’, ভিক্টর হুগোর ‘দ্য ম্যান হু লাফস’, জুলভার্নের ‘আশি দিনে বিশ্বভ্রমণ’, মার্ক টোয়েনের ‘দ্য অ্যাডভেঞ্চারস অব হাকলবেরি ফিন’, মেরি শেলির ‘ফ্রাঙ্কেনস্টাইন’, আলেকজান্ডার দ্যুমার ‘থ্রি মাস্কেটিয়ার্স’ প্রভৃতি।

১৯৪৬ সালে পশ্চিমবঙ্গের হুগলিতে জন্মগ্রহণ করেছিলেন শেখ আবদুল হাকিম। দেশভাগের পর চার বছর বয়সে পরিবারের সঙ্গে পূর্ব পাকিস্তানে চলে আসেন তিনি।