grand river view

।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

করোনা সংক্রমণ কমে যাওয়ায় এবং শিক্ষার্থীদের টিকা দেয়া শেষে অক্টোবরের মাঝামাঝি থেকে দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলো খুলে দেয়া শুরু হবে বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা নিয়ে বৃহস্পতিবার (২৬ আগস্ট) অনলাইনে সরকারের নীতি নির্ধারকদের এক বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়েছে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা বলেন, যেসব শিক্ষার্থীদের টিকা দেয়া হয়েছে, তাদের তথ্য বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনে পাঠানো হবে। সেপ্টেম্বর নাগাদ সবাইকে টিকা দেয়া শেষ করতে হবে। এরপর ১৫ দিনের মতো সময় নিয়ে ১৭ অক্টোবর থেকে স্ব স্ব বিশ্ববিদ্যালয় খোলার দিন ঘোষণা করা হবে।

বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সদস্য (ইউজিসি) মুহাম্মদ আলমগীর জানান, ১৫ অক্টোবরের পর থেকে বিশ্ববিদ্যালয়গুলো খুলবে। তার আগে শিক্ষার্থীদের ভ্যাকসিনেশন শেষ করা হবে।

তিনি জানান, আগামী ৭ থেকে ৮ দিনের মধ্যে ভ্যাকসিনেশনের তথ্য, ছাত্র-ছাত্রীদের জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) আছে কিনা তার সম্পূর্ণ তথ্য শিক্ষা মন্ত্রণালয়কে জানাতে হবে। শিক্ষা মন্ত্রণালয় চেষ্টা করবে অল্প সময়ের মধ্যে সবাইকে ভ্যাকসিন দিয়ে দেয়ার। যাদের এনআইডি নেই তাদের এনআইডি সংগ্রহ করার চেষ্টা করতে হবে। যদি এনআইডি সংগ্রহের জন্য দীর্ঘ সময় লেগে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে তাহলে বিকল্প ব্যবস্থায় অন্য আইডেন্টিফিকেশনের মাধ্যমে টিকা দেয়ার ব্যবস্থার চেষ্টা করা হবে।

তিনি জানান, একই সাথে আবাসিক হলগুলোও খুলে দেয়া হবে। হল খুলে দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় খুলে দেয়া হবে।

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর জন্যও একই পদ্ধতি হবে বলে জানান ইউজিসি সদস্য মুহম্মদ আলমগীর।

গতবছর ১৮ মার্চ থেকে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা হয়েছে। সবশেষ ৩১ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ছুটি বাড়ানো হয়। আর বিশ্ববিদ্যালয়গুলো অক্টোবরে খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিলো সরকার।