grand river view

।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন আরও ১৫৯ জন। তাদের নিয়ে দেশে করোনাতে আক্রান্ত হয়ে সরকারি হিসাবে মোট মারা গেলেন ২৪ হাজার ৮৭৮ জন।

বৃহস্পতিবার (১৯ আগস্ট) স্বাস্থ্য অধিদফতর নিয়মিত সংবাদি বুলেটিনে  এ তথ্য জানিয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদফতর জানায়,  গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন আরও ছয় হাজার ৫৬৬ জন। তাদের নিয়ে  সরকারি হিসেবে দেশে এখনও পর্যন্ত মোট শনাক্ত হলেন ১৪ লাখ ৪৭ হাজার ২১০ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে  সুস্থ হয়েছেন ১০ হাজার ১৫৩ জন। তাদের নিয়ে মোট সুস্থ হলেন ১৩ লাখ ৩৭ হাজার ১৮১ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় রোগী শনাক্তের হার ১৭ দশমিক ৬৪ শতাংশ। আর এখনও পর্যন্ত শনাক্তের হার ১৬ দশমিক ৯১ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯২ দশমিক ৪০ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যু হার এক দশমিক ৭২ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার নমুনা সংগৃহীত হয়েছে ৩৭ হাজার ৪২৯টি, আর নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৩৭ হাজার ২২৭টি।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের তথ্যমতে, দেশে এখনও পর্যন্ত করোনার মোট নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৮৫ লাখ ৫৯ হাজার ৫৪টি। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় পরীক্ষা হয়েছে ৬৩ লাখ ৩৭ হাজার ১৬১টি, আর বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় পরীক্ষা হয়েছে ২২ লাখ ২১ হাজার ৮৯৩টি।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাতে মারা যাওয়া ১৫৯ জনের মধ্যে পুরুষ ৭৬ জন, আর নারী ৮৩ জন।

স্বাস্থ্য অধিদফতর জানায়, দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে এখনও পর্যন্ত মোট পুরুষ মারা গেছেন ১৬ হাজার ৩১৯ জন, আর নারী মারা গেলেন ৮ হাজার ৫৫৯ জন।

অধিদফতর আরও জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ১৫৯ জন। বয়স বিবেচনায় তাদের মধ্যে ৮১ থেকে ৯০ বছরের মধ্যে রয়েছেন ১৪ জন, ৭১ থেকে ৮০ বছরের মধ্যে ৩৩ জন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে ৩৯ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ৩৫ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে ২০ জন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে ১২ জন, ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে তিন জন, ১১ থেকে ২০ বছরের মধ্যে দুই জন, আর শূন্য থেকে ১০ বছরের মধ্যে রয়েছে একজন।

অপরদিকে বিভাগভিত্তিক বিশ্লেষণে তাদের মধ্যে ঢাকা বিভাগের ৫০ জন, চট্টগ্রাম বিভাগের ৩৮ জন, রাজশাহী বিভাগের ১৩ জন, খুলনা বিভাগের ১২ জন, বরিশাল বিভাগের ১০ জন, সিলেট বিভাগের ২৩ জন, রংপুর বিভাগের ৮জন, আর ময়মনসিংহ বিভাগের রয়েছেন ৫ জন।

মারা যাওয়া ১৫৯ জনের মধ্যে সরকারি হাসপাতালে মারা গেছেন ১২৯ জন, বেসরকারি হাসপাতালের মারা গেছেন ২৬ জন, আর বাড়িতে মারা গেছেন ৪ জন।