grand river view

।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

গণটিকা কার্যক্রম নিয়ে যেসব কথা উঠছে তা গ্রহণযোগ্য নয় বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী। বিভিন্ন দেশ ও উৎস থেকে যে টিকা আসছে আগামী ছয় মাস তা আসা অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।

শনিবার (১৪ আগস্ট) জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় আয়োজিত আলোচনা সভায় সেতুমন্ত্রী এ কথা জানান।

তিনি বলেন, গণটিকা কার্যক্রম বাস্তবায়ন ও সরবরাহ নিয়ে যেসব কথা উঠছে তা বাস্তবে গ্রহণযোগ্য নয়। বর্তমানে বিভিন্ন দেশ ও উৎস থেকে টিকা আসছে, আগামী ছয় মাস তা আসা অব্যাহত থাকবে।

শেখ হাসিনা সরকার করোনা সংকটের শুরু থেকেই নানা সীমাবদ্ধতা নিয়েই সংকট মোকাবিলা করে যাচ্ছে উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, প্রধানমন্ত্রী দূরদর্শী নেতৃত্বে প্রথম ঢেউ মোকাবিলা করেন। দ্বিতীয় ঢেউ জীবন-জীবিকার মধ্যে ভারসাম্যমূলক পদক্ষেপ নেওয়ার মাধ্যমে তিনি এ চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করছেন।

গণটিকা কার্যক্রমে জনমানুষের স্বতঃস্ফূর্ত উপস্থিতি অত্যন্ত আশাব্যঞ্জক, কিন্তু কেউ কেউ গণটিকা গ্রহণে জনগণের এ আগ্রহ ভালো চোখে দেখছে না উল্লেখ করে সেতুমন্ত্রী বলেন, তারা এ নিয়ে সত্য-মিথ্যার বেসাতি করে ইস্যু খোঁজার অপপ্রয়াস চালাচ্ছে। গণটিকা কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। একদিকে টিকা আসতে থাকবে অপরদিকে টিকা দেওয়া অব্যাহত থাকবে। টিকা নিয়ে কোনো সংকট নেই, আগামীতেও হবে না। এ নিয়ে অপপ্রচার থেকে বিরত থাকার জন্য অপপ্রচারকারীদের প্রতি আহ্বান জানাই।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. শরফুদ্দীন আহমেদের সভাপতিত্বে ভার্চ্যুয়ালি বক্তব্য রাখেন- স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক, সাবেক মন্ত্রী আ ফ ম রুহুল হক, বিএমএ’র সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন।

এছাড়া বক্তব্য রাখেন- স্বাচিপের সভাপতি ডা. ইকবাল আর্সেনাল, সাধারণ সম্পাদক ডা. এম এ আজিজ, আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. রোকেয়া সুলতানা।