grand river view

।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

দুই দফায় ছয় দিনের রিমান্ড শেষে আদালতে নেয়া হয়েছে চিত্রনায়িকা পরীমনিকে।

শুক্রবার (১৩ আগস্ট) বেলা পৌনে ১২টার দিকে তাকে ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালতে হাজির করা হয়।

এদিন পরীমনিকে আদালতে হাজির করে নতুনভাবে আর রিমান্ড চাওয়া হয়নি। তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাকে আটক রাখার আবেদন করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সিআইডির পুলিশ পরিদর্শক গোলাম মোস্তফা।

আবেদনে তিনি বলেন, পরীমনি রিমান্ডে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছেন। মামলার তদন্তের স্বার্থে তাকে কারাগারে আটক রাখা প্রয়োজন।

আসামিপক্ষ থেকে জামিন আবেদন করা হয়েছে। দুপুর দুইটার পর ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট ধীমান চন্দ্র মণ্ডলের আদালতে এ বিষয়ে শুনানি হবে।

গুলশান থানার আদালতর সাধারণ নিবন্ধন শাখার কর্মকর্তা এসআই মো. আলমগীর এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

এর আগে গত ৫ আগস্ট পরীমনিকে বনানী থানার মাদক মামলায় চারদিন ও ১০ আগস্ট দ্বিতীয় দফায় দুই দিনের রিমান্ডে পাঠান আদালত।

গত ৪ আগস্ট বিকেল ৪ টার পর পরই বনানীর ১২ নম্বর রোডের পরীমনির বাসায় অভিযান পরিচালনা করে র‌্যাব। এ সময় ওই বাসা থেকে বিপুল পরিমাণ বিদেশি বিভিন্ন ব্র্যান্ডের দামি মদ, মদের বোতলসহ অন্যান্য মাদকদ্রব্য জব্দ করা হয়। ওইদিন রাত সোয়া আটটার দিকে বনানীর বাসা থেকে পরীমনিকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য র‌্যাব সদর দপ্তরে নিয়ে যাওয়া হয়।

অভিযানের প্রথম দিকে পরীমনি র‌্যাবকে সহযোগিতা করেননি। পরে তার ঘর তল্লাশি করে ফ্ল্যাটের কেবিনেট থেকে ১৮.৫ লিটার বিদেশি মদসহ দুইটি গ্ল্যানলিভেট, একটি গ্ল্যানফিডিচ, চার গ্রাম আইস, এক স্লট এলএসডি এবং একটি পাইপ উদ্ধার করা হয়।

পরে তাদের বিরুদ্ধে র‌্যাব-১ এর সিপিও মজিবর রহমান মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। সেই মামলায় পরীমনিকে চারদিনের রিমান্ডে পাঠান আদালত।