grand river view

।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

জিম্বাবুয়ে সিরিজের রেশ কাটতে না কাটতেই বাংলাদেশের সামনে আরেকটি সিরিজ। এবার ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে লড়াই। পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে অংশ নিতে চার বছর পর অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দল এখন ঢাকায়।

বৃহস্পতিবার বিকাল ৪টায় হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করেছে অজিদের বহনকারী কোয়ান্টাস এয়ারওয়েজের চার্টার্ড বিমান। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে বিষয়টি।

বিমানবন্দন থেকে সরাসরি টিম হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে চলে গেছে অস্ট্রেলিয়ানরা। বিসিবি ও ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার (সিএ) যৌথ ব্যবস্থাপনায় টিম হোটেলকে আগে থেকেই জৈব সুরক্ষা বলয়ের আওতায় আনা হয়েছে। ওখানে তিন দিনের কোয়ারেন্টিন শেষে অনুশীলন শুরু করবে অস্ট্রেলিয়া।

এদিকে সকালে দেশে ফেরা বাংলাদেশ দল তিন দিনের কোয়ারেন্টিন শেষ করে ১ আগস্ট অনুশীলনে ফিরবে। পাঁচ ম্যাচ সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টি ৩ আগস্ট। পরের চারটি ম্যাচ হবে যথাক্রমে ৪, ৬, ৭ ও ৯ আগস্ট। এক সপ্তাহের মধ্যে পাঁচ ম্যাচ খেলবে দুই দল। মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামের প্রতিটি ম্যাচ হবে দিবারাত্রির। তবে ম্যাচগুলো কখন শুরু হবে, সেটি জানায়নি বিসিবি।

২০১৭ সালে সর্বশেষ বাংলাদেশ সফরে এসেছিল অস্ট্রেলিয়া। যদিও গত বছরের জুনে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে আসার কথা ছিল তাদের। কিন্তু করোনাভাইরাস পরিস্থিতি খারাপের দিকে যাওয়ায় সিরিজটি স্থগিত হয়ে যায় দুই মাস আগেই। এবার যদিও আসছে, তবে অনেক তারকা খেলোয়াড় বাংলাদেশ সফরের দলে নেই। সেই তালিকায় আছেন স্টিভেন স্মিথ, ডেভিড ওয়ার্নার, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ও প্যাট কামিন্সের মতো ক্রিকেটাররা। আর সর্বশেষ ইনজুরির কারণে ছিটকে গেছেন অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ।

বাংলাদেশ সফরে অংশ নিতে অস্ট্রেলিয়া বেশ কিছু কঠিন শর্ত দেয়। সেই শর্তের বেড়াজালে মুশফিকুর রাহিম ও লিটন দাস সিরিজ থেকে ছিটকে গেছেন। বাবা-মায়ের অসুস্থতার খবরে ওয়ানডে সিরিজের আগে দেশে ফিরে আসা মুশফিক অস্ট্রেলিয়ার দেওয়া বাধ্যতামূলক ১০ দিনের কোয়ারেন্টিন করতে পারেননি বলেই ছিটকে গেছেন।

এই উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান ছাড়াও অস্ট্রেলিয়া সিরিজে খেলতে পারছেন না তামিম ইকবাল ও লিটন। শ্বশুর ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হওয়ায় গত মঙ্গলবার জিম্বাবুয়ে থেকে দেশে ফেরেন লিটন। জৈব সুরক্ষা বলয় ভেঙে ফেলায় অস্ট্রেলিয়া সিরিজে মাঠে ফেরার সুযোগ নেই তার। আর ইনজুরির কারণে ছিটকে গেছেন তামিম। আগামী ৮ সপ্তাহ রিহ্যাব প্রোগ্রামের মাধ্যমে ইনজুরি মুক্ত হবেন এই ওপেনার।