।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

রংপুর বিভাগের ৮ জেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় ১২ জন মারা গেছেন। একই সময়ে তিন হাজার ১০৯ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৮৩৭ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে চলতি মাসের ২৭ তারিখ পর্যন্ত বিভাগে ৩২ নারীসহ ৪১২ জন মারা গেছেন।

মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার আক্রান্ত হয়ে রংপুরে চারজন মারা গেছেন। এছাড়া পঞ্চগড় ও ঠাকুরগাঁওয়ে দুইজন করে, লালমনিরহাট-কুড়িগ্রাম-দিনাজপুর ও গাইবান্ধায় একজন করে রোগী মারা গেছেন। একই সময়ে দিনাজপুরে সর্বোচ্চ করোনা শনাক্ত হয়েছে ২০৯ জনের। এর পরে রয়েছে রংপুরের ১৬১ জন।

এদিকে করোনায় ১২ জনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রংপুর বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদফতরের পরিচালক ডা. মোতাহারুল ইসলাম। এ নিয়ে রংপুর বিভাগে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ৮৬৬ জন। আক্রান্তের হার বেড়ে ২৬ দশমিক ৯২  শতাংশে দাঁড়িয়েছে।

বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদফতর সূত্র জানায়, বিভাগের আট জেলায় করোনা সংক্রমণ ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। বিশেষ করে দিনাজপুর, রংপুর, ঠাকুরগাঁও, লালমনিরহাট ও কুড়িগ্রামে করোনা রোগীর সংখ্যা আশঙ্কাজনক হারে বাড়ছে।

এ পর্যন্ত রংপুর বিভাগে নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে দুই লাখ চার হাজার ৯৫৪ জনের। এদের মধ্যে করোনা পজিটিভ হয়েছেন ৪১ হাজার ৫৮১ জন। সুস্থ হয়েছেন ৩১ হাজার ৪৩৮ জন।

বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদফতরের পরিচালক ডা. মোতাহারুল ইসলাম বলেন, সীমান্তবর্তী জেলা দিনাজপুর, ঠাকুরগাঁও ও লালমনিরহাট এবং বিভাগীয় শহর রংপুরে করোনা সংক্রমণ আশাঙ্কাজনক হারে বেড়েছে। এর মধ্যে দিনাজপুরে আক্রান্তের সংখ্যা ১২ হাজার ১৯৭ জন, রংপুরে ৯ হাজার ৯৩ জন এবং ঠাকুরগাঁওয়ে পাঁচ হাজার ৭৩৯ জন, কুড়িগ্রামে তিন হাজার ১৩৫জন। স্বাস্থ্যবিধি না মানা এবং মাস্ক পরিধান না করায় প্রতিদিন সংক্রমণ বাড়ছে বলেও জানান তিনি।