।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

মাত্রাতিরিক্ত উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের জেরে বিশ্বের ঐতিহ্যের তালিকা থেকে অবেশেষে বাদ পড়লো ইংল্যান্ডের ঐতিহ্যবাহী বন্দর নগরী লিভারপুল। জাতিসংঘের সর্বোচ্চ এই সংস্থাটির অভিযোগ, বছরের পর বছর উন্নয়নের কারণে ভিক্টোরিয়ান ডকসের অপূরণীয় ক্ষতি হওয়ায় এর তাৎপর্য হারিয়েছে। চীনে সংস্থাটির এক বৈঠকে ভোটাভুটির পর লিভারপুলকে ইউনেস্কার তালিকা থেকে বাদ দেয়ার সিদ্ধান্ত আসে।

২০১২ সালে শহরটির নাম ‘ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ ইন ডেনজার’ হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করে জাতিসংঘের শিক্ষা, গবেষণা ও সংস্কৃতিবিষয়ক সংস্থা (ইউনেস্কো)। সংস্থাটি বলেছে, ‘সেখানে নতুন এভারটন এফসি স্টেডিয়ামের মেগা প্রকল্পের কারণে ঐতিহাসিক স্থপনাগুলো মারাত্মক ক্ষতি হয়েছে’।

শুধু তাই নয় শহরটিতে বড় বড় নতুন প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে। সেখানকার বহুতল ভবন নির্মাণে ইউনেস্কোর তালিকা থেকে বাদ পড়ার উল্লেখযোগ্য কারণ।

লিভারপুল শহরে পিয়ার হেড, আলবার্ট ডক ও উইলিয়াম ব্রাউন স্ট্রিটসহ ছয়টি এলাকার নিয়ে গঠিত লিভারপুল মেরিটাইম মার্কেন্টাইল সিটি। ২০০৪ সালে বিশ্ব ঐতিহ্যের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করে ইউনেস্কো। কিন্ত ধারবাহিক উন্নয়নের কারণে শহরের গুরুত্বপূর্ণ ঐতিহাসিক স্থাপনা ক্ষতি হচ্ছে অনেক আগেই প্রশাসনকে সতর্ক করে আসলেও তেমন কোন পদক্ষেপ নিতে দেখা যায়নি।

তবে এ সিদ্ধান্তে চরম হতাশা ব্যক্ত করে আবেদন করার কথা জানিয়েছেন লিভারপুলের মেয়র জোয়ানি অ্যান্ডারসন।

Comments are closed, but trackbacks and pingbacks are open.