grand river view

।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

রাজশাহীর চারঘাটে ঈদ উপলক্ষে আতশবাজি নিয়ে সংঘর্ষে আশিক ইসলাম (১৮) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় তিনজনকে আটক করা হয়েছে।

মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

নিহত আশিক ইসলাম উপজেলার চারঘাট পৌরসভার মেরামাতপুর গ্রামের আসলাম আলীর ছেলে।

আটকরা হলেন- নিহত আশিক ইসলামের বন্ধু উপজেলার ডালিপাড়া গ্রামের আশিক আলীর বাবা কালাম আলী, মা আরিফা বেগম ও বড় ভাই আরিফ। ঘটনার মূল আসামি আশিক আলী ও নিহত আশিক ইসলাম এইচএসসি প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে নিহত আশিক ইসলাম ও তার বন্ধুরা স্থানীয় কাঁকড়ামারী বাজারে আতশবাজি কিনতে যায়। আতশবাজি নিয়ে ফেরার পথে তাদের আরেক বন্ধু আশিক আলী সঙ্গে দেখা হয়। এ সময় আশিক ইসলাম ও তার বন্ধুদের কাছে থেকে মজার ছলে আতশবাজি কেড়ে নিয়ে পালিয়ে যায় আশিক আলী।

পরে রাত ১০টার দিকে আশিক ইসলাম ও তার বন্ধুরা কয়েকজন মিলে ডালিপাড়া গ্রামে আশিক আলীর বাড়িতে যায় আতশবাজি উদ্ধার করতে। এ সময় দুই আশিকের মধ্যে কথা-কাটাকাটি শুরু হয়। একপর্যায়ে আশিক ইসলাম ও তার বন্ধুরা আশিক আলীর পরিবারের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে আশিক আলী ও আশিক ইসলাম দুজনই আহত হয়। তাদের হাসপাতালে নেওয়ার পথে আশিক ইসলামের মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় আশিক আলীর বাবা কালাম আলী, মা আরিফা বেগম ও বড় ভাই আরিফকে আটক করেছে পুলিশ।

চারঘাট মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহাঙ্গীর আলম বলেন, আতশবাজি নিয়ে সংঘর্ষের ঘটনায় আশিক ইসলাম নামে একজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় তিনজনকে আটক করা হয়েছে। মূল আসামিকেও আটকের চেষ্টা চলছে।