।। শোবিজ প্রতিবেদন ।।

বাংলাদেশের সুন্দরপুরের এক খ্যাতনামা রেস্তোরাঁ এবং তার চেয়েও অদ্ভুত সেটির নাম- ‘রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও খেতে আসেননি’। কিন্তু এটি কেন এত জনপ্রিয়- সেটা জানতেই সেখানে এসে হাজির হন সাংবাদিক নিরুপম চন্দ।

রেস্তোরাঁটি শুধু জনপ্রিয়ই নয়, রহস্যঘেরাও। তারচেয়েও বেশি রহস্য এর মালিকিন মুসকান জুবেরীকে নিয়ে!

আজ (১৫ জুলাই) ইউটিউবে অবমুক্ত হলো সৃজিত মুখোপাধ্যায়ের দ্বিতীয় বাংলা ওয়েব সিরিজ ‘রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও খেতে আসেননি’র টিজার।

এটি প্রকাশ হতেই আলোচনা শুরু হলো। আর তার বেশিরভাগ অংশেই আছেন বাংলাদেশি অভিনেত্রী আজমেরী হক বাঁধন। যিনি কান উৎসবে উড়ছেন ‘রেহানা মরিয়ম নূর’ ছবির সূত্র ধরে। 

কানে ‘রেহানা মরিয়ম নূর’ প্রশংসিত হওয়ায় কলকাতায়ও বাঁধনকে নিয়ে আগ্রহ তৈরি হয়েছে। এরমধ্যে প্রকাশ হলো সৃজিতের মুসকান। প্রাসঙ্গিকভাবেই নেটমাধ্যমে তাকে নিয়ে চলছে আলোচনা।

এছাড়া ‘রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনো খেতে আসেনি’র বাঁধনের উপস্থিতিও বেশ চমকপ্রদ ও রহস্যঘেরা।

ট্রেলার ও বাঁধন প্রসঙ্গে হিন্দুস্তান টাইমস লিখেছে, ‘ফের বাংলায় প্রত্যাবর্তন, এবার হইচই হচ্ছে এই রহস্য-রোমাঞ্চ সিরিজ নিয়ে। সিরিজে মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করছেন আজমেরী হক বাঁধন। টলিগঞ্জের দর্শক এই নামের সঙ্গে খুব বেশি পরিচিত না হলেও সম্প্রতি কানের লালগালিচায় ঢাকাই জামদানিতে ঝড় তুলেছেন যিনি, সেই বাঁধনই টলিউড জার্নি শুরু করছেন সৃজিতের হাত ধরে। মুসকান জুবেরীর চরিত্রে চমকে দিলেন এই বাংলাদেশি অভিনেত্রী।’

ওটিটি প্ল্যাটফর্ম হইচই-এর জন্য ওয়েব সিরিজটির শুটিং হয়েছে সিকিমের জিরো পয়েন্ট ও পশ্চিমবঙ্গের বর্ধমান-দুর্গাপুর এলাকায়।

বাংলাদেশি লেখক মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিনের উপন্যাস অবলম্বনে সিরিজটি তৈরি। এখানে সাংবাদিক নিরুপম চন্দর চরিত্রে রয়েছেন রাহুল বোস, আর আতর আলির চরিত্রে থাকছেন অনির্বাণ ভট্টাচার্য। তিনি পুলিশ সোর্সের ভূমিকায় রয়েছেন। একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকায় দেখা যাবে অঞ্জন দত্তকে।

আগামী ১৩ আগস্ট থেকে হইচই-তে স্ট্রিমিং শুরু হবে এই সিরিজের।