।। ঘরে বাইরে ডেস্ক ।।

কঠোর ব্যায়ামে ঘাম ঝরে ও মাংসপেশী তৈরি হয় ঠিকই, কিন্তু হাঁটার জোর এরচেয়েও বেশি। সপ্তাহে একটি নির্দিষ্ট সময় হাঁটার ফলে আপনার শরীরের আগাগোড়া ফিট হতে থাকবে। বিভিন্ন সমস্যা থেকে মিলবে মুক্তি ও বাড়বে আয়ু।

সপ্তাহে অন্তত প্রতিদিন আড়াই ঘণ্টা হাঁটলে আয়ুতে যোগ হবে বাড়তি এক বছর। পাশাপাশি ডায়াবেটিস, কোলেস্টেরল সংক্রান্ত শারীরিক সমস্যা তো যাবেই। সম্প্রতি ব্রিটিশ জার্নাল অব স্পোর্টস মেডিসিনে প্রকাশিত ১১ বছরের গবেষণালব্ধ ফলে এটি রীতিমতো প্রমাণ হয়েছে। ইউনিভার্সিটি অফ টেক্সাস সাউথ ওয়েস্টার্ন-এর এ গবেষণায় ব্যবহার করা হয়েছে প্রায় ৩ লাখ ৮০ হাজার মানুষের তথ্য। ডেইলি মেইলের প্রতিবেদন সূত্রে জানা গেছে এমন তথ্যই।

দেখা গেছে পঞ্চাশোর্ধ্বদের মধ্যে যারা শুয়ে-বসে বা ঘুমিয়েই দিন কাটায় তারা দ্রুত নানা শারীরিক সমস্যায় ভুগে মারা গেছেন। অন্যদিকে যারা বেশি হেঁটেছেন তারা দীর্ঘজীবী হয়েছেন। গবেষণা শেষে দেখা গেছে, অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে মারা গেছে ১৫ হাজার জন। কম ঘুম এবং কম ব্যায়ামের ফলে তারা রোগে ভুগেছেন। তাদের ৪০৯৫ জন হৃদরোগজনিত রোগে, ক্যান্সারে ৯০৬৪ জন ও ফুসফুসের ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়েছিলেন ১৫৯৫ জন। মোটের ওপর যারা কম ঘুমিয়েছে ও কম ব্যায়াম করেছে তাদের ৬৭ শতাংশই হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছিলেন।

গবেষকরা বলছেন, ৫৫-৮০ বছর বয়সীদের মধ্যে ৭০ শতাংশেরই স্মৃতিশক্তি কম ছিল। এরপর গবেষকরা অংশগ্রহণকারীদের প্রতি সপ্তাহে ৩০ থেকে ৪০ মিনিট হাঁটতে বলেছিলেন। এক বছর পর দেখা গেলো হাঁটাচলার কারণে তাদের দেহে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা ও স্মৃতিশক্তি বেড়েছে।