grand river view

।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

২০১৯ সাল। কোপা আমেরিকার ফাইনাল। গ্যাব্রিয়েল জেসুস একটি গোল করলেন, আরও একটি করালেন। তারপর লাল কার্ড পেয়ে বেরিয়েও গেলেন। শেষ দিকে পেনাল্টিতে ব্রাজিল পেল আরেকটি গোল। ঘটনাবহুল এক ফাইনালে পেরুকে গুঁড়িয়ে দিয়ে প্রায় এক যুগ পর কোপা আমেরিকার অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল। ২০০৭ সালের পর শিরোপা জিতে সবমিলিয়ে নবমবার লাতিন আমেরিকার সেরা দল হয় সেলেসাওরা। 

দুই বছর পর আবারও কোপা আমেরিকার গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে ফের মুখোমুখি হচ্ছে গেলবারের দুই ফাইনালিস্ট দল। এবার আর ফাইনাল নয়; বরং, গ্রুপপর্বে দ্বৈরথের পর ফাইনালে উঠার লড়াইয়ে শেষ চারেই লড়বে দুদল।

মঙ্গলবার ঘরের মাঠ রিও ডি জেনেরিওতে বাংলাদেশ সময় ভোর ৫টায় কোপা আমেরিকার প্রথম সেমিফাইনালে পেরুর বিপক্ষে মাঠে নামবে ব্রাজিল। মাত্র আঠারো দিনের মধ্যে আবারও কোপার মঞ্চে দু’দলের লড়াই। গত ১৮ জুন গ্রুপ পর্বে নেইমার-জাদুতে পেরুকে ৪-০ গোলে বিধ্বস্ত করেছিলো তিতের দল।

গ্রুপপর্বে ব্রাজিল চার ম্যাচে তিন জয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েই পরবর্তী রাউন্ড নিশ্চিত করে। শেষ আটে চিলি বিপক্ষে সুবিধা করতে না পারলেও বদলি নামা লুকাস পাকুতার গোলে হাঁফ ছেড়ে বাঁচে স্বাগতিকরা। অন্যদিকে, পেরু ব্রাজিলের গ্রুপে ৪ ম্যাচে ২ জয় ১ ড্র ও ১ হারে দুইয়ে থেকেই কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করে। শেষ আটে চরম নাটকীয় ম্যাচে প্যারাগুয়েকে টাইব্রেকারে হারিয়ে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করে।

মুখোমুখি লড়াইয়ে সব মিলে ৪৬টি ম্যাচ খেলেছে ব্রাজিল-পেরু। সেলেসাওদের জয় ৩৩টিতে। কোপায় মুখোমুখি ১২ লড়াইয়ে ব্রাজিলের জয় ৮টিতে। হার ও ড্র দুটি করে।

সার্বিক পরিসংখ্যানেও ব্রাজিলের রেকর্ড খুব সমৃদ্ধ। এবারের স্বাগতিকরা সব প্রতিযোগিতা মিলে অপরাজিত ১১ ম্যাচ। এর মাঝে জাল অক্ষত থেকেছে ৮টিতে! আবার কোপায় রেকর্ডও ডাকছে ব্রাজিল কোচকে। ফাইনালে পৌঁছালে কোপায় সর্বাধিক ম্যাচে অপরাজিত থাকার রেকর্ডে ভাগ বসাবেন তিতে।

ফলাফল যাই হোক, গেলোবারের এক ফাইনালিস্টের বিদায় তো নিশ্চিত। কিন্তু সেই ফলটা কী হবে? ব্রাজিল আরেকবার পেরুকে বিধ্বস্ত করবে, নাকি এবারের দিনটি হবে গেলোবারের রানারআপদের? প্রশ্নের জবাব মিলবে ম্যাচ শেষে। মঙ্গলবার ভোর ৫টায় ম্যাচটি সরাসরি দেখাবে সনি টেন-২ ও সনি সিক্স।