সাংবাদিক বুলবুল হাবিব

।। বিশেষ প্রতিনিধি, রাজশাহী ।।

র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন পরীক্ষায় রোববার নমুনা দেয়ার পর কয়েক মিনিটের মধ্যেই রাজশাহীর সাংবাদিক বুলবুল হাবিবকে ফলাফল জানানো হয়- ‘নেগেটিভ’। অর্থ্যাৎ তার মধ্যে করোনার সংক্রমণ মেলেনি। একদিন পরেই তার নমুনা আরটিপিসিআর ল্যাবে পরীক্ষার পর জানা যায়, তিনি ‘পজিটিভ’। অর্থ্যাৎ তার শরীরে করোনা সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে।

মঙ্গলবার তার নমুনার পাশাপাশি স্ত্রী মিথিলা আক্তারের নমুনায়ও সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে আরটিপিসিআর পরীক্ষায়। বুলবুল হাবিব এটিএন নিউজ ও দ্য বিজনেস স্ট্যান্ডার্ডে রাজশাহীর প্রতিনিধিত্ব করেন। এছাড়া রাজশাহী থেকে পরিচালিত পদ্মাটাইমস নামের একটি অনলাইন নিউজ পোর্টালের বার্তা সম্পাদক হিসেবে কাজ করেন বুলবুল। তার সংক্রমণের বিষয়টি পদ্মাটাইমসই নিশ্চিত করেছে।

জানতে চাইলে বুলবুল হাবিব বলেন, “রোববার আমি র‌্যাপিড টেস্টে নমুনা দিয়ে নেগেটিভ রেজাল্ট পাই। সোমবার আমার স্ত্রী ও আমার জ্বর হয়। সে কারণে আমি আরটিপিসিআর পরীক্ষার জন্য নমুনা দিলে মঙ্গলবার আমাদের সংক্রমণ শনাক্ত হয়।”

তিনি জানান, তার স্ত্রীর জ্বর নামলেও তার জ্বর আছে এখনও। চিকিৎসকের পরামর্শে বাসায় আইসোলেশনে আছেন বলেও জানান তিনি।

প্রসঙ্গত, বিশ্বজুড়ে র‌্যাপিড টেস্টের ফলাফলের সঠিকতার হার আরটিপিসিআর পরীক্ষার তুলনায় অনেক কম। তবে সামাজিক সংক্রমণ শনাক্ত করে দ্রুত সিদ্ধান্ত ও চিহ্নিত করার ক্ষেত্রে এর ভূমিকা আছে। ফলে র‌্যাপিড টেস্টে নেগেটিভ হলেই তাকে নিরাপদ হিসেবে মনে করে না খোদ ইউরোপ ও মার্কিন মুলুকে।