।। সংবাদদাতা, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ।।

স্বাস্থ্যবিধি মেনে ক্যাম্পাস ও হল খুলে দেয়াসহ ৬ দফা দাবিতে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করেছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) শিক্ষার্থীরা।

বুধবার (২ জুন) সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট ভবনের সামনে থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করে। পরে প্রধান সড়কগুলো প্রদক্ষিণ করে প্রশাসন ভবনের সামনে অবস্থান নেয় শিক্ষার্থীরা।

এসময় শিক্ষার্থীরা ৬ দফা দাবি পেশ করে। দাবিগুলো হলো- স্বাস্থ্যবিধি মেনে হল ও ক্যাম্পাস খুলে দিতে হবে; দ্রুত সময়ের মধ্যে আটকে থাকা পরীক্ষাগুলো সম্পন্ন করতে হবে; সংক্ষিপ্ত সময়ের মধ্যে সব বর্ষের ক্লাস-পরীক্ষার ব্যবস্থা করতে হবে; সেশনজট এড়াতে কার্যকর সকল পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে; অবিলম্বে সকল শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ভ্যাকসিনের আওতায় আনতে হবে; ক্যাম্পাসে করোনা ইউনিট ও আইসোলেশন ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে হবে।

প্রশাসন ভবনের সামনে অবস্থান নেয় শিক্ষার্থীরা

শিক্ষার্থীরা বলেন, দীর্ঘ ছুটিতে আমরা হতাশাগ্রস্ত হয়ে পড়েছি। মার্কেট, শপিংমল, গণপরিবহন, গার্মেন্টস, ফ্যাক্টরি সব কিছু চলছে শুধু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ। তা মেনে নেয়া যায় না। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকার ফলে আজ লাখো শিক্ষার্থীর ক্যারিয়ার ধ্বংসের পথে। আমরা আমদের ভবিষ্যত নিয়ে যথেষ্ট চিন্তিত, হতাশাগ্রস্ত। কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয় খুলে দেয়ার কোনো নাম গন্ধ নেই। একের পর এক তারিখ ঘোষণা করে যাচ্ছে। আমাদের ৬ দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আমরা ধারাবাহিক আন্দোলন চালিয়ে যাবো।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর লিয়াকত আলী বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় খোলার ব্যাপারে শিক্ষামন্ত্রী বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের সঙ্গে আলোচনা করেছেন। সেখান থেকে কিছু গাইড লাইন দেয়া হয়েছে। সেগুলো বাস্তবায়ন করার জন্য আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত দিতে হবে। তবেই তা বাস্তবায়ন করা সম্ভব হবে। আগামীকাল আমাদের বিভিন্ন অনুষদের ডিন, বিভাগের সভাপতিদের সঙ্গে মিটিং রয়েছে। সেখানে কীভাবে পরীক্ষা নেয়া যায় তা নিয়ে আলোচনা হবে। পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের দাবিগুলো বাস্তবায়নের বিষয়ে পরিকল্পনা করা হবে। আশা করছি শিক্ষার্থীদের জন্য ভালো খবর আসবে।