grand river view

।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

রোববারের (১৬ মে) ফিলিস্তিনের গাজায় ইসরায়েলি সামরিক বাহিনীর হামলায় কমপক্ষে ৪২ জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছেন কয়েক শতাধিক। এছাড়াও দুটি আবাসিক ভবন গুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। 

হেস্তনেস্ত না হওয়া পর্যন্ত হামাসের বিরুদ্ধে অভিযান চালিয়ে যাবে ইসরায়েলি সেনা। ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু এমন বক্তব্যের পরপরই নতুন করে গাজায় রকেট এবং বোমাবর্ষণ শুরু করেছে ইসরায়েল।

এরআগে নেতানিয়াহুর সাফ জানিয়ে দেন, আমারা কোনো অপরাধ করিনি। যারা আমাদের আক্রমণ করে চলেছে, যাবতীয় অপরাধবোধের দায় তাদেরই।

গত শনিবার গাজায় আন্তর্জাতিক সংবাদ সংস্থা ইউএস অ্যাসোসিয়েট প্রেস এবং আল জাজিরার ১২ তলা ভবন গুঁড়িয়ে দেয় ইসরায়েলি সেনারা। এতে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়লেও নেতানিয়াহু বলেন, এখনও অভিযান চলছে। যতদিন প্রয়োজন, ততোদিন পর্যন্ত অভিযান চলবে। হামাসের মতো ইচ্ছাকৃতভাবে সাধারণ নাগরিকদের নিশানা করছি না আমরা। বরং নিরীহ নাগরিকদের এড়িয়ে সন্ত্রাসবাদীদের ওপরই সরাসরি আঘাত হানছি।

জানা যায়, গাজার হামাস প্রধান ইয়েহিয়া আল-সিনওয়ারের বাড়িতে হামলা চালানো হয়েছে।

গত সোমবার (১০ মে) থেকে শুরু হওয়া এ  হামলায় গাজায় ৫৮ জন শিশু ও ৩৪ জন নারীসহ কমপক্ষে ১৯২ জন নিহত হয়েছেন। এছাড়াও ফিলিস্তিনের হামলায় ইসরায়েলের দুই শিশুসহ ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে।