।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে অনন্তলোকে পাড়ি জমালেন বর্ষীয়ান সাহিত্যিক অনীশ দেব। তাঁর বয়স হয়েছিল ৭০ বছর। বাংলার অন্যতম জনপ্রিয় কল্পবিজ্ঞান বিষয়ক লেখক ছিলেন তিনি।

করোনা আক্রান্ত হওয়ার পরে কলকাতা শহরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন অনীশ দেব। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজারের এক প্রতিবেদন সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

আনন্দবাজার লিখেছে, লেখকের জন্য এবি পজিটিভ রক্তের প্লাজমার দরকার ছিল। মঙ্গলবার রাত থেকেই নেটমাধ্যমে সাধারণ মানুষের হাহাকার পড়ে গিয়েছিল প্লাজমার খোঁজে। জানা যায়, বেশ কয়েক ঘণ্টা পরে প্লাজমা জোগার হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু ভেন্টিলেশন থেকে ফিরতে পারলেন না সাহিত্যিক।

কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে পদার্থবিজ্ঞান বিভাগে লেকচারার হিসাবে কর্মজীবন শুরু করেন অনীশ। পাশাপাশি তাঁর কলমও কোনও দিন থামেনি। গোয়েন্দা গল্প, কল্পবিজ্ঞান বিষয়ক সাহিত্য, ভূতের গল্প লিখতেন অনীশ দেব।

এই প্রসঙ্গে অনীশের মেয়ে মোনালিসা দেব বলেন, ‘বাবার অক্সিজেনের মাত্রা খুব কমে গিয়েছিল। চিকিৎসকরা বলেন প্লাজমা দিলে হয়তো অবস্থার কিছুটা উন্নতি হবে। আমরা প্লাজমা জোগাড়ও করে ফেলি। কিন্তু মঙ্গলবার রাতেই বাবার অবস্থা আরও খারাপ হওয়ায় ভেন্টিলেশনে দিতে হয়। তার পরেই বাবার কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট হয়। বুধবার সকালে খবর পাই বাবার মৃত্যু হয়েছে।’