।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

দেশে করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) নাইজেরিয়ান ভ্যারিয়েন্টের (বি.১.৫২৫) অস্তিত্ব পাওয়া গেছে। গ্লোবাল ইনিশিয়েটিভ অন শেয়ারিং অল ইনফ্লুয়েঞ্জা ডাটার (জিসএইড) ওয়েবসাইটে আপলোড করা তথ্য থেকে এসব জানা যায়। মার্চ ও এপ্রিল মাসে সংগ্রহ করা নমুনার সিকোয়েন্সিং করে এই ভ্যারিয়েন্টের উপস্থিতি পেয়েছেন দেশের গবেষকরা। এর আগে যুক্তরাজ্য ও দক্ষিণ আফ্রিকার ভ্যারিয়েন্টে পাওয়া যায়।

জিসএইডের তথ্য অনুযায়ী, এখন পর্যন্ত দেশের দুই বিভাগের আটটি নমুনা পরীক্ষায় এই ভ্যারিয়েন্টের উপস্থিতি পাওয়া গেছে। ঢাকার উত্তরা, আজিমপুর ক্যান্টনমেন্ট এলাকার পাশাপাশি সিলেটের সুনামগঞ্জ থেকে সংগ্রহ করা নমুনায় এই ভ্যারিয়েন্ট পাওয়া গেছে। এসব নমুনা এই বছরের মার্চ ও এপ্রিল মাসে সংগ্রহ করা হয়। এর মধ্যে পুরুষ ছয় জন এবং নারী দুজন।

জিসএইড এ এসব তথ্য আপলোড করে বাংলাদেশ বিজ্ঞান ও শিল্প গবেষণা পরিষদের (বিসিএসআইআর) এবং চাইল্ড হেলথ রিসার্চ ফাউন্ডেশন।

উল্লেখ্য, নাইজেরিয়ার এই ভ্যারিয়েন্টের সর্বপ্রথম উপস্থিতি পাওয়া যায় যুক্তরাজ্যে। পরবর্তীতে ফেব্রুয়ারির ১৫ তারিখ নাইজেরিয়ায় এটি সবচেয়ে বেশি ছড়িয়ে পড়ে। ২৪ ফেব্রুয়ারির দিকে যুক্তরাজ্যে ৫৬টি নমুনার সিকোয়েন্সিংয়ে এই ভ্যারিয়েন্টের উপস্থিতি পাওয়া যায়।