।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

রাজশাহীর পুঠিয়ায় রসুন বিক্রি করতে হাটে আসার পথে ট্রাকের চাপায় ভ্যানচালকসহ দুইজন মারা গেছেন। এ দুর্ঘটনায় ভ্যানে থাকা আরো দুইজন আরোহী গুরুতর আহত হয়েছেন।

সোমবার (৫ এপ্রিল) সকাল সাড়ে ৬ টার দিকে উপজেলার ঢাকা-রাজশাহী মহাসড়কের সেনভাগ বাজার এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হচ্ছেন নাটোর সদর উপজেলার সুলতানপুর গ্রামের ব্যাটারিচালিত ভ্যানচালক শহীদুল ইসলাম (৪২) ও প্রতিবেশী রসুন বিক্রেতা আব্দুস সামাদ (৫০)। অপরদিকে গুরুতর আহতরা হচ্ছেন একই গ্রামের মোজাম্মেল হোসেন ও আবুল কালাম।

এদিকে স্থানীয় লোকজন ট্রাকটি আটক করতে পারলেও চালক-হেলপার পালিয়ে যায়। সড়ক দুর্ঘটনার পর বিক্ষুব্ধ লোকজন প্রায় এক ঘন্টা মহাসড়ক অবরোধ করে রাখেন। খবর পেয়ে হাইওয়ে ও থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।

প্রত্যক্ষদর্শী রেজাউল ইসলাম বলেন, সোমবার ঝলমলিয়া হাটবার। ভোরে এই হাটে রসুন বিক্রি করতে ভ্যান যোগে আসছিল তারা। পথে সেনভাগ বাজারে আসামাত্র পেছন দিক থেকে নাটোর থেকে রাজশাহীগামী একটি ট্রাক ভ্যানকে সজরে চাপা দেয়। এতে ভ্যানচালকসহ দুইজন মারা যায়। অপর দু’জন গুরুতর আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় স্থানীয় লোকজন প্রায় এক ঘন্টা মহাসড়ক অবরোধ করে রাখেন।

এ ব্যাপারে পবা হাইওয়ে থানার ইনচার্জ লুৎফর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, সকালের দিকে একটি ব্যাটারিচালিত ভ্যানে সুলতানপুর গ্রামের লোকজন রসুন নিয়ে হাটে আসছিল। পথে সেনভাগ এলাকায় ভ্যানটি উল্টে ট্রাকের নিচে পড়ে। এতে ঘটনা স্থলেই ভ্যানচালকসহ দু’জন নিহত হয়। আর আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ বিষয়ে থানায় একটি মামলার প্রস্তুতি চলছে। তবে এলাকাবাসীদের অনুরোধক্রমে লাশ ময়নাতদন্ত ছাড়াই তাদের পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে।