।। নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী ।।

হরতালের নামে দেশব্যাপী তাণ্ডব চালানোর কারণে হেফাজতে ইসলামকে নিষিদ্ধের দাবি জানিয়েছে রাজশাহী সাংবাদিক ইউনিয়ন (আরইউজে)। শনিবার (৩ এপ্রিল) সকালে হেফাজতে ইসলামের উগ্র কর্মীদের দ্বারা সাংবাদিক নির্যাতন ও লাঞ্ছনার প্রতিবাদে সংগঠনটির এক মানববন্ধন কর্মসূচি থেকে এ দাবি জানানো হয়।

নগরীর সাহেববাজার জিরোপয়েন্টে মানববন্ধন চলাকালে বক্তারা বলেন, হেফাজত শব্দের অর্থ রক্ষা করা। কিন্তু হেফাজতে ইসলাম ধ্বংসলীলায় মেতে উঠেছে। ইসলাম শান্তির ধর্ম। ইসলামের নামে ধ্বংসলীলা চলতে দেয়া যায় না।” তারা বলেন, একাত্তরের মহান মুক্তিযুদ্ধ হয়েছিল অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশের স্বপ্ন দেখে। সংবিধানেও চার মূলনীতি আছে। এর একটি ধর্মনিরপেক্ষতা। কিন্তু হেফাজতে ইসলাম সাম্প্রদায়িকতার বিষবাষ্প ছড়াচ্ছে।”

বক্তারা আরও বলেন, “হেফজতের উগ্র কর্মীরা সরাদেশে রাষ্ট্রীয় স্থাপনায় ধ্বংসযজ্ঞ চালিয়েছে। গণমাধ্যমকর্মীদের নির্যাতন করেছে। লাঞ্ছিত করেছে। গণমাধ্যমের গাড়িতে অগ্নিসংযোগ করেছে। দেশের স্বাধীনতা এবং সার্বভৌমত্বকে চ্যালেঞ্জ করেছে। তাই অবিলম্বে ধর্মভিত্তিক এই সংগঠনটিকে নিষিদ্ধ করতে হবে। আর ধ্বংসযজ্ঞের যারা জড়িত, তাদের বিচােেরর আওতায় আনতে হবে।”

আরইউজে সভাপতি রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক তানজিমুল হকের পরিচালনায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন- সাবেক আরইউজে সভাপতি মুস্তাফিজুর রহমান খান, বর্তমান সহসভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা তৈয়বুর রহমান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান টুকু, কোষাধ্যক্ষ সরকার দুলাল মাহবুব, সাবেক বিএফইউজে সহসভাপতি মামুন অর রশিদ, বিএফইউজে নির্বাহী সদস্য জাবীদ অপু, আরটিজেএ সভাপতি মেহেদী হাসান শ্যামল, ফটোজার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন রাজশাহী শাখার সভাপতি আসাদুজ্জামান আসাদ এবং রাজশাহী মেট্রোপলিটন প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আজিজুল ইসলাম।