।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

আগামী সোমবার থেকে সারাদেশে এক সপ্তাহের লকডাউন দেয়া হচ্ছে। লকডাউনে বইমেলা চলবে কি চলবে না তা নিয়ে শুরু হয়েছে গুঞ্জন।

বইমেলা নিয়ে এখন পর্যন্ত আনুষ্ঠানিক কোনো সিদ্ধান্তের কথা জানা যায়নি। তবে লকডাউন দিলে বইমেলা চালানোর সুযোগই নেই বলে জানিয়েছে সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় সূত্র।

বাংলা একাডেমি এবং সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী রোববার পর্যন্ত বইমেলা চলার পর মূল সিদ্ধান্ত জানা যাবে।

শনিবার (৩ এপ্রিল) দুপুর ৩টা পর্যন্ত বাংলা একাডেমি এবং সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা এমন তথ্য জানিয়েছেন।

এদিন দুপুরে বাংলা একাডেমির জনসংযোগ বিভাগ জানায়, বইমেলা নিয়ে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত আসেনি।

এ বিষয়ে সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা জানান, লকডাউন দিলে বন্ধ হতে পারে বইমেলা।

সংশ্লিষ্ট এক কর্মকর্তা বলেন, লকডাউন হলে তো সবই বন্ধ থাকবে, বইমেলাও বন্ধ থাকবে, তাই তো হওয়ার কথা। কালকের দিনটা দেখি।

তিনি বলেন, এখনও কোনো প্রজ্ঞাপন আসেনি। কোভিডের কারণে তো সমাবেশ নিষিদ্ধ আছে। লকডাউন দিলে তো বইমেলা চালানোর সুযোগই নেই। শুধু কলকারখানা খোলা থাকবে হয়তো, বাকি সবকিছু বন্ধ। যেগুলো খোলা থাকবে, সেগুলোও স্বল্প পরিসরে।

তবে লকডাউন দিলেও সীমিত পরিসরে বইমেলা চালু রাখার আহ্বান জানিয়েছেন প্রকাশকরা। তারা বলছেন, করোনার কারণে এবারের বইমেলাতে এমনিতেই বেচকেনা নেই। এরপর যদি লকডাউন দেয়া হয় এবং বইমেলা বন্ধ হয়, তাহলে ক্ষতির মাত্রা পৌঁছাবে চরমে। তাই সীমিত পরিসরে হলেও বইমেলা উন্মুক্ত রাখার দাবি তাদের।