।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

করোনা সংক্রমণ রোধে ফের দুই সপ্তাহের জন্য সাজেকসহ পার্বত্য জেলা রাঙামাটি ও খাগড়াছড়ির সব পর্যটন ও বিনোদন কেন্দ্র বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। পাশাপাশি সংক্রমণরোধে বেশকিছু নির্দেশনা জারি করা হয়েছে।

বুধবার (৩১ মার্চ) বিকালে রাঙামাটি জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মিজানুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ‘কোভিড সংক্রমণে করণীয় নির্ধারণ’ শীর্ষক আয়োজিত এক জরুরি সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সভায় দুই সপ্তাহের জন্য অন্তর্র্বতীকালীন এই সিদ্ধান্ত, পরিস্থিতি বিবেচনায় বাড়তে পারে বলেও আভাস দেয়া হয়।

একইসঙ্গে সভায় সিদ্ধান্ত হয়, ওষুধের দোকান ছাড়া প্রতিদিন রাত ৮টায় জেলার সব দোকানপাট ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও মার্কেট বন্ধ, গণপরিবহনে সিট ফাঁকা রেখে যাত্রী পরিবহন, হোটেল-মোটেলে অর্ধেক টেবিল-চেয়ার তুলে রেখে ভোক্তাদের সেবা দেয়ার নির্দেশনা দেয়া হয়।

রাঙামাটির জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মিজানুর রহমান বলেন, করোনা সংক্রমণ রোধে রাঙামাটির সাজেকসহ সব পর্যটন ও বিনোদন কেন্দ্র দুই সপ্তাহের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলাচলের জন্য অনুরোধ জনানো হয়। একই সঙ্গে প্রয়োজন ছাড়া কেউ যাতে ঘর থেকে বের না হয় এবং ঘর থেকে বের হলে অবশ্যই যেন মাস্ক পরিধাণ করা হয় সে বিষয়ে নির্দেশনা দেয়া হয়।

সভায় সিভিল সার্জন ডা. বিপাশ খীসা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তাপস রঞ্জন ঘোষ, পরিবহন মালিক শ্রমিক প্রতিনিধি, গণমাধ্যকর্মীরা এসময় উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে খাগড়াছড়ি জেলার সব পর্যটন কেন্দ্র পরবর্তী ১৪ দিনের জন্য বন্ধ ঘোষণা করেছে জেলা প্রশাসন। জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাস বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, দেশে হঠাৎ করে করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় গতকাল জেলায় ১৮ দফা নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। কিন্তু পর্যটক ঠেকানো না গেলে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ জেলায় বেড়ে যাবে, এই আশঙ্কা থেকে এই নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। পরিস্থিতি ভালো হলে পুনরায় পর্যটন কেন্দ্রগুলো পুনরায় খুলে দেয়া হবে বলে জানান তিনি।