।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

ভারতের মুম্বাইয়ে কোভিড হাসপাতালে ভয়াবহ আগুন লেগেছে। এতে অন্তত তিনজন রোগীর মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন। বৃহস্পতিবার গভীর রাতে লাগা আগুন শুক্রবার সকাল পর্যন্ত আগুন নিয়ন্ত্রণে আসেনি। আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা চালাচ্ছে দমকলের ২২টি ইঞ্জিন।

মুম্বাই শহরের বিভিন্ন হাসপাতাল কোভিড রোগীতে ভর্তি। মুম্বাইয়ের ভান্ডুপে ড্রিমস মলের মধ্যে থাকা এক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন এমনই ৭০-এর বেশি কোভিড রোগী। সেখানেই বৃহস্পতিবার সাড়ে ১২টা নাগাদ আগুন লাগে। যার জেরে এখনও অবধি অন্তত তিননের মৃত্যু হয়েছে। বাকি রোগীদের সেখান থেকে বের করে অন্য হাসাপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়েছে। যদিও দমকলের এক অফিসার জানিয়েছেন, ৬ জন ব্যক্তি এখনও আটকে রয়েছেন হাসপাতালের ভেতর। তাদের উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।

মুম্বাইয়ের ওই কোভিড হাসপাতালে আগুন লাগার খবর পেয়েই সেখানে পৌঁছে যায় দমকলের ২২টি ইঞ্জিন। এরপর থেকেই আগুন নেভানোর কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন দমকলকর্মীরা।

এ নিয়ে পুলিশ অফিসার প্রশান্ত কদম বলেছেন, আগুনের ঘটনায় তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। মলের দোতলায় প্রথম আগুন লাগে। তারপর তা ছড়িয়ে পড়ে।

আগুন নেভানোর পাশাপাশি কোভিড রোগীদের অন্য হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়েছে। সেখানকার এক চিকিৎসক বলেছেন, ৭৩ জন কোভিড রোগীর মধ্যে ৩০ জনকে মুলুন্দ জাম্বো সেন্টারে, ৩ জনকে ফর্টিস হাসাপাতালে এবং বাকিদের অন্য একটি কোভিড নিরাময় কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

যদিও কী থেকে এই আগুন লেগেছে তা এখনও পর্যন্ত জানা যায়নি। ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণও অজানা।