।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

মালবাহী ট্রেনের পর যাত্রীবাহী ট্রেনে ঢাকা-নিউ জলপাইগুড়ি যাত্রা শুরুর অপেক্ষায় নীলফামারীবাসী। ভারত ও বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী আগামী ২৭ মার্চ আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করবেন এই ট্রেনের। চিলাহাটি স্টেশনসহ অন্যান্য অবকাঠামোর কাজ পুরোপুরি শেষ না হলেও মোটামুটি প্রস্তুত উভয় অংশের রেলপথ।

দীর্ঘ ৫৫ বছর পর আবারো ঢাকা-নিউ জলপাইগুড়ি রেলপথে চলবে যাত্রীবাহী ট্রেন। গত ১৭ ডিসেম্বর ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বাংলাদেশ-ভারতের প্রধানমন্ত্রী আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করেন মালবাহী ট্রেনের। ঢাকায় দু’দেশের প্রধানমন্ত্রী ২৭ মার্চ উদ্বোধন করবেন যাত্রীবাহী ট্রেনের।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানকে ঘিরে নীলফামারীর চিলাহাটি স্টেশনে চলছে উন্নয়নের কাজ। চিলাহাটি জিরো পয়েন্ট পর্যন্ত ৭ কিলোমিটার নতুন রেলপথ নির্মাণসহ ভিআইপি গেস্ট হাউসের কাজ শেষ হলেও অত্যাধুনিক হাইটেক মডেলের রেলস্টেশন, দোতলা টিএক্সআর অফিস, কাস্টম অফিস, ইয়ার্ডে আরো ৫টি লাইন বসানোর কাজ চলছে জোরেশোরে।

রেলওয়ে ট্রানজিট রুট পুনরায় চালু হলেও চিলাহাটিকে পূর্ণাঙ্গ স্থলবন্দর হিসেবে ঘোষণার দাবি জানিয়েছেন ব্যবসায়ীরা। আর নীলফামারী জেলা প্রশাসক মো. হাফিজুর রহমান চৌধুরী জানান, পূর্ণাঙ্গ স্থলবন্দরের জন্য পরিকল্পনা অনুযায়ী কাজ চলছে।

২০১৩ সালে সাবেক নৌপরিবহন মন্ত্রী চিলাহাটিকে স্থলবন্দর ঘোষণা দিয়ে উদ্বোধন করেন। সেটা গেজেট আকারে প্রকাশও হয়।